প্রাণীর ছবিযুক্ত কাপড় পরলে কি নামাজ হবে?

ধর্ম

স্বদেশবাণী ডেস্ক:  প্রশ্ন: প্রাণীর ছবিযুক্ত কাপড় পরা যাবে? যদি আমি তা পরিধান করে নামাজ পড়ি তাহলে কি আদায় হবে?

উত্তর: ইসলামে যেকোনো প্রাণীর ছবি আঁকা হারাম। ইমাম নববী (রহ.) বলেন, আমাদের শাফেয়ি মাজহাব ও অন্য মাজহাবের আলেমরা বলে থাকেন, কোনো প্রাণীর ছবি প্রস্তুত করা কঠোরভাবে নিষিদ্ধ। এটি কবিরাগুনাহ।

কেননা এ ব্যাপারে হাদিসের কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

এই ছবি দিয়ে কাউকে সম্মান করা হোক বা অপমান, উভয় অবস্থায় তা হারাম। কেননা এর ফলে আল্লাহর সৃষ্টির সঙ্গে সাদৃশ্য অবলম্বন হয়ে যায়। কাপড়, বিছানা, মুদ্রা, বাসনকোসন, দরজা বা অন্য যেকোনো কিছুতে ছবি আঁকা হারাম।

প্রাণীর ছবি ছাড়া অন্যান্য ছবি হারাম নয়। যেমন- গাছপালা, পাহাড়, ঝরনা ইত্যাদির ছবি ব্যবহার করা নিষিদ্ধ নয়। (শরহে নববী ১৪/৮১)

ইসলামী শরিয়ত মতে, কোনো প্রাণীর ছবিযুক্ত পোশাক পরিধান করা হারাম। তবে প্রাণহীন বস্তু যেমন- বৃক্ষ, পাহাড়, ঝরনা ইত্যাদির ছবি বৈধ। (আল-বাহরুর রায়েক : ২/২৯, মেরকাতুল মাফাতিহ ৪৪৮৯)

অনেকে মনে করেন, ছবিযুক্ত পোশাক পরিধান করা শুধু নামাজের ক্ষেত্রে হারাম! ফলে তারা নামাজের সময় এ ব্যাপারে খেয়াল রাখলেও অন্য সময় উদাসীন থাকে। অথচ এটা তাদের ভ্রান্ত ধারণা।

সর্বাবস্থায় ছবিযুক্ত পোশাক পরিধান করা হারাম। তবে হ্যাঁ, নামাজে এমন পোশাক পরিধান করা গর্হিত অপরাধ।

কোনো ছবিযুক্ত কাপড় দিয়ে নামাজ আদায় করা হোক বা না হোক, উভয় অবস্থায় তা মাকরুহে তাহরিমি বা হারাম। (আল-বাহরুর রায়েক ২/২৯)

সুতরাং ছবিযুক্ত কাপড় পরে নামাজ পড়লে তা আদায় হয়ে যাবে ঠিকই, কিন্ত মাকরুহে তাহরিমি বিষয়ে লিপ্ত অবস্থায় নামাজ পড়ার কারণে গুনাহ হবে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *