সিলেটে ফের পরিবহন ধর্মঘটের হুমকি

সারাদেশ

স্বদেশবাণী ডেস্ক:  সিলেট নগরীরে চৌহাট্টায় অবৈধ গাড়ি স্ট্যান্ড উচ্ছেদকে কেন্দ্র করে আবারও ১০ দিনের আলটিমেটাম দিয়েছেন জেলা বাস মিনিবাস কোচ মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের নেতারা।

বুধবার রাতে সিলেট মহানগর পুলিশ কমিশনার বরাবর দেওয়া এক স্মারকলিপিতে তারা এ আলটিমেটাম দেন। স্মারকলিপির অনুলিপি দেয়া হয়েছে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেনসহ সব প্রশাসনিক দফতরে।

বিষয়টি যুগান্তরকে নিশ্চিত করেছেন জেলা বাস মিনিবাস কোচ মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল মুহিম।

তিনি জানান, ১৩ মার্চের মধ্যে তিন দফা দাবি মেনে না নিলে ১৪ মার্চ ভোর ৬টা থেকে সিলেট জেলার পরিবহন শ্রমিকরা অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি পালন করবেন। এছাড়া আগামী শনিবার দুপুরে সিলেট হুমায়ুন রশীদ চত্বরে মানববন্ধন পালন করবেন পরিবহন শ্রমিকরা।

পরিবহন শ্রমিকদের ৩ দফা দাবি হচ্ছে- কোতোয়ালি থানায় শ্রমিক ও নেতাদের ওপর দায়ের করা মিথ্যা মামলাদ্বয় প্রত্যাহার, ভাংচুরকৃত গাড়ির ক্ষতিপূরণ, আটককৃত গাড়ি ফেরত দেওয়া ও গাড়ি রাখার জন্য স্ট্যান্ডের ব্যবস্থা করা।

সিলেট জেলা বাস মিনিবাস কোচ মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. ময়নুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল মুহিম পুলিশ কমিশনারের কাছে পরিবহন শ্রমিকদের পক্ষে এ স্মারকলিপি পেশ করেন।

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়- চৌহাট্টার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মোল্লারগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মখন মিয়া, সিলেট মহানগর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আব্দুর রহমান রিপন, বন্দরবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সহ-সভাপতি আতিক মিয়া ও সিলেট জেলা ট্রাক মালিক গ্রুপের সভাপতি গোলাম হাদী ছয়ফুলের আহবানে গত ২১ ফেব্রুয়ারি রাতে সিটি করপোরেশনে বৈঠক হয়।

ওই বৈঠকে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের (সিসিক) মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীসহ কাউন্সিলর, মালিক শ্রমিক নেতা ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে দীর্ঘ আলোচনার পর ১৭ ফেব্রুয়ারি সৃষ্ট ঘটনায় ভাংচুরকৃত গাড়িগুলো ক্ষতিপূরণ প্রদান, আটককৃত গাড়ি ফেরত ও মামলা প্রত্যাহার করতে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। কিন্তু এখনো সিলেট সিটি করপোরেশন থেকে এ ব্যাপারে কার্যকর কোনো উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি।

স্মারকলিপিতে পরিবহন নেতারা আরও বলেন- এ নিয়ে গত মঙ্গলবার বিকালে সিলেট জেলা বাস মিনিবাস কোচ মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের প্রধান কার্যালয়ে সভাপতি ময়নুল ইসলামের সভাপতিত্বে সিলেট জেলার ৬টি রেজিস্ট্রার্ড সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সমন্বয়ে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ওই প্রতিবাদ সভায় সৃষ্ট ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সমঝোতা বৈঠকের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন না করায় নিন্দা জানানো হয়। একই সঙ্গে ৩ দফা দাবিতে আলটিমেটামসহ কর্মবিরতির কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। স্মারকলিপিতে এ ব্যাপারে সিলেট মহানগর পুলিশ কমিশনারের সর্বাত্মক সহযোগিতা চেয়েছেন পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের নেতারা।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *