মহানবী (সা:)কে কটূক্তি, মধ্যরাতের অভিযানে চুয়েটছাত্র গ্রেফতার

সারাদেশ

স্বদেশবাণী ডেস্ক:  ফেসবুকে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা:) কে উদ্দেশ্য করে নোংরা, বিদ্বেষপূর্ণ ও অশালীন মন্তব্য করার দায়ে সৌরভ চৌধুরী (২৪) নামে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) এর এক শিক্ষার্থীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আজ রোববার ভোর ৪টার দিকে চট্টগ্রামের সহকারী পুলিশ সুপার (রাউজান-রাঙ্গুনিয়া সার্কেল) মো. আনোয়ার হোসেন শামীম’র নেতৃত্বে রাউজান থানা পুলিশের একটি চৌকস দল চট্টগ্রাম মহানগরীর উত্তর নালাপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাত সাড়ে ৩টায় ২০/৩০ জন পুলিশ সদস্য উত্তর নালাপাড়ার ১৩৫নং বাসাটি (হাজী ইয়াকুব মঞ্জিল) ঘিরে ফেলে। পরবর্তীতে পূর্বসংবাদের ভিত্তিতে ওই ভবনের ৭ তলায় অভিযান চালিয়ে ব্যবহৃত স্মার্টফোনসহ সৌরভকে আটক করে নিয়ে যায় তারা। এ সময় সার্কেল এএসপি আনোয়ার হোসেন শামীম ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল হারুন এবং সেকেন্ড অফিসার অজয় দেব। আটক সৌরভ চৌধুরীর বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে রাউজান থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রমতে, গত ১৯ মার্চ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মহানবী হযরত মুহম্মদ (স:)-কে নিয়ে অশালীন মন্তব্য করেছিলেন চুয়েটের পুরকৌশল বিভাগের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী সৌরভ চৌধুরী। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তিনি এই কটূক্তি করেন। তার এমন উগ্র আচরণ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন চুয়েটের অন্যান্য শিক্ষার্থীরা। চুয়েট আড্ডাবাজ নামক একটি গ্রুপ থেকে তার কটূক্তি সম্বলিত স্ক্রিনশট ভাইরাল হলে সাধারণ শিক্ষার্থীরা তার বহিষ্কার ও তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান।

শিক্ষার্থীরা জানায়, সৌরভ শিক্ষাজীবনে অত্যন্ত মেধাবী একজন ছাত্র। তিনি বর্তমানে পুরকৌশল বিভাগের সর্বোচ্চ সিজিপিএ ধারণ করছেন।

পুরকৌশল বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী শহীদুল ইসলাম বলেন, তিনি হয়তো এখন শিক্ষক হবেন, পরে বিভাগীয় প্রধান কিংবা ডিন হবেন, কোনও হলের প্রভোস্ট কিংবা ছাত্র কল্যাণ এর পরিচালক হিসেবেও তাকে দায়িত্ব দেওয়া হরে পারে। অথবা সরকারি বড় কোনও দপ্তরের কোনও নীতিনির্ধারক-এর পদেও বসতে পারেন। কিন্তু তার যে ধরণের মন-মানসিকতার বহিঃপ্রকাশ আমরা দেখলাম তাতে অদূর ভবিষ্যতে আমরা, বিশ্ববিদ্যালয় তথা দেশের জনগণ শঙ্কা বৈ ভালো কিছু আশা করতে পারছে না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক ড. রেজাউল করিম বলেন, আমরা বিষয়টি ইতিমধ্যেই জেনেছি। আমি নিজেও চুয়েট আড্ডাবাজে মুসলিম অমুসলিম সবার বক্তব্য পড়েছি। তারা তাদের ক্ষুব্ধ মনোভাব প্রকাশ করার পাশাপাশি তার শাস্তির দাবিও জানিয়েছে। এসব বিষয়ে আসলে কোনও ছাড় দেওয়ার সুযোগ নাই। তথ্য উপাত্তের ভিত্তিতে আগামীকাল শৃঙ্খলা কমিটির আলোচনা সভা হতে পারে।

এ প্রসঙ্গে গ্রেফতার অভিযানের নেতৃত্বে থাকা চট্টগ্রামের সহকারী পুলিশ সুপার (রাউজান-রাঙ্গুনিয়া সার্কেল) মো. আনোয়ার হোসেন শামীম বলেন, ফেসবুকে ধর্মীয় উষ্কানিমূলক ও রাষ্ট্রবিরোধী মন্তব্য করায় গতরাতে আসামি সৌরভ চৌধুরীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়। এই প্রেক্ষিতে চট্টগ্রাম নগরের নালাপাড়া এলাকা থেকে আমরা তাকে গ্রেফতার করি।

উল্লেখ্য, গত অক্টোবর মাসে নবী করিম (স:)-কে নিয়ে কটূক্তি করায় রায়হান রোমান নামের এক শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করে চুয়েট প্রশাসন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *