পরিচ্ছন্ন পরিবেশ ও বসবাসের দিক দিয়ে রাজশাহী দেশের সর্বশ্রেষ্ঠ শহর: মেয়র লিটন

রাজশাহী লীড

স্টাফ রিপোর্টার:
পরিচ্ছন্ন পরিবেশ ও বসবাসের দিক দিয়ে রাজশাহী দেশের সর্বশ্রেষ্ঠ শহর। বাংলাদেশের যেকোন নগরীর তুলনায় এখানকার পরিচ্ছন্ন পরিবেশের সুনাম ইতোমধ্যে ছড়িয়ে গেছে। আগত দেশি-বিদেশী পর্যটকদের এ নগরীর সুন্দর পরিবেশ আকৃষ্ট করেছে। এ অর্জনকে ধরে রাখতে চাই। সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন পরিষদের অনুষ্ঠিত বিশেষ সাধারণ সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, সিটি নির্বাচন ও জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর রাজশাহী মহানগরী অতি দ্রুততম সময়ে পরিচ্ছন্ন হওয়ায় নগরী ফিরে পায় তার চিরচেনা রূপ। আর এটি সম্ভব হয়েছে বর্তমান পরিষদ ও একাজে সংশ্লিষ্ট সকলের আন্তরিকতার ফলে। যা দেশে প্রশংসিত হয়েছে।

মেয়র বলেন, নগরীর উন্নয়নে মেগা প্রকল্প গ্রহণ করা হচ্ছে। প্রতিটি ওয়ার্ডে স্থায়ী ওয়ার্ড কার্যালয় স্থাপনের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হচ্ছে। সেখানে কমিউনিটি সেন্টার, খেলার মাঠ, পার্ক স্থাপনের পরিকল্পনা রয়েছে। ওয়ার্ড পর্যায়ে পরিচ্ছন্ন কার্যক্রম জোরদারকরণ, মশক নিয়ন্ত্রণ, ফুটপাত ও রাস্তা দখলমুক্তকরণ, ভাড়ায় ট্রাক প্রদান, প্রয়োজনে পূর্বঅনুমোদন সাপেক্ষে নির্মাণ সামগ্রী রাখতে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করতে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড সচিব ও পরিচ্ছন্ন সুপারভাইজারদের আরও বেশি আন্তরিক হবার পরামর্শ প্রদান করেন তিনি। সভায় মশক নিয়ন্ত্রণে ক্রাশ প্রোগ্রাম পরিচালনার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। আগামীতে রাসিকের সকল কার্যক্রমে গতিশীলকরণে চারটি জোনে বিভক্ত করা হবে বলে জানান মেয়র।

সভায় জন্ম নিবন্ধন কার্যক্রম জোরদারকরণে উঠান বৈঠকের মাধ্যমে উদ্বুদ্ধকরণে স্বাস্থ্য বিভাগকে আরও বেশি যতœশীল হবার পরামর্শ প্রদান করেন তিনি। নওদাপাড়ায় অবস্থিত ল্যান্ডফিল্ডটি সংস্কারের বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা প্রদান করেন তিনি। পরিচ্ছন্ন কার্যক্রমে গতিশীলকরণে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান, ব্যবসায়ী প্রতিনিধি, ধর্মীয় নেতৃবৃন্দদের সমন্বয়ে কমিটি গঠণের বিষয়ে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সভায় প্লাস্টিক বর্জ্য থেকে ডিজেল ফুয়েল, এলপিজি এবং জৈব সার প্রস্তুতে পাইলট প্রকল্পের বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এছাড়াও সিটি সেন্টার ভবন ফ্লোর বরাদ্দ ও নগরীর যানজট নিরসনে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

বিকেলে নগরভবন সভাকক্ষে আয়োজিত সভায় রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ সরিফুল ইসলাম বাবু, প্যানেল মেয়র-২ ও ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রজব আলী, প্যানেল মেয়র-৩ ও ১নং সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর তাহেরা খাতুন মিলি, ২২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ আব্দুল হামিদ সরকার টেকন, ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ নিযাম উল আযীম, রাসিকের ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রেজাউল করিম, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা শাহানা আখতার জাহান উপস্থিত ছিলেন।

সভায় রাসিকের সম্মানীয় কাউন্সিলর ও সকল বিভাগ, শাখার কর্মকর্তাবৃন্দসহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের সচিব ও পরিচ্ছন্ন বিভাগের সুপারভাইজারবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.