বাঘায় নিয়োগ পরীক্ষা দিতে এসে ফিরে গেছেন আবেদনকারিরা

রাজশাহী লীড

বাঘা প্রতিনিধি:
রাজশাহীর বাঘায় নোটিশ ছাড়াই সহকারি প্রধান শিক্ষক ও নৈশ প্রহরি পদে নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিতের অভিযোগ উঠেছে। বৃহসপতিবার (২১-০৩-১৯) সকাল ১০ টায় উপজেলার চক রাজাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে ওই দুটি পদে নিয়োগ পরীক্ষা নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে পরীক্ষা দিতে এসে সহকারি প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ প্রত্যাশি ১২ জন ও নৈশ প্রহরি পদে ৮ জন ফিরে গেছেন। বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক অর্থের বিনিময়ে পছন্দের প্রার্থীকে নিয়োগ দেওয়ার কৌশল অবলম্বন করেছেন বলে অভিযোগ করেন নিয়োগ প্রত্যাশিরা ।

তারা অভিযোগ করেন, চকরাজাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে ১ জন সহকারি প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগের জন্য গত ২৪-১১-২০১৮ইং তারিখে জাতীয় ” দৈনিক সংগ্রাম”পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। এবং ১জন নৈশ প্রহরি পদে নিয়োগের জন্য ২১-১০-২০১৮ ইং তারিখে স্থানীয় দৈনিক “লালগোলাপ” পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। সে মোতাবেক সহকারি প্রধান শিক্ষক পদে ১৪ জন ও পিয়ন পদে মোট ১২জন আবেদন করেন। বৃহসপতিবার (২১-০৩-১৯) সকাল ১০ টায় উপজেলার চক রাজাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে ওই দুটি পদে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সহ অংশ গ্রহনের জন্য বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের স্বাক্ষরিত চিঠি আবেদকারিদের নিকট পাঠানো হয়।

সরেজমিন চক রাজাপুর বাজারে কথা হলে সহকারি প্রধান শিক্ষক পদে আবেদনকারি নজরুল ইসলাম বলেন, পরীক্ষা দিতে এসে বিদ্যালয়ে তালা ঝুলতে দেখেন। অপেক্ষা করেও কাউকে পাননি। একই কথা জানান,নৈশ প্রহরি পদে নিয়োগ প্রত্যাশি জুয়েল হোসেন (তারিক)। তারাসহ নিয়োগ প্রত্যাশি আরো কয়েকজন হতাশ হয়ে বসে ছিলেন ওই বাজারের চায়ের দোকানে। সেখানে ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য ও লক্ষীনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুজিবুর রহমান। আলাপের এক পর্যায়ে তারা বলেন, এর আগেও দুইবার বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছিল।্ কিন্তু ডিজির প্রতিনিধি না পাওয়ার টালবাহনায় নিয়োগ বন্ধ রাখা হয়। এবারে মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে পছন্দের প্রার্থীকে নিয়োগ দেওয়ার কৌশলে স্থান পরিবর্তন করে সরদহ সরকারী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে নিয়োগ পরীক্ষা নেওয়ার কথা জানতে পারেন। ফরিদ আহম্মেদ টিটো নামের একজন জানান, ১১.২৪মিনিটের সময় জানতে পারেন তাদের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

প্রধান শিক্ষক আব্দুস সাত্তার বলেন, নোটিশ দিয়ে জানান নি। তবে মোবাইলে পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন।উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আরিফুর ইসলাম বলেন, নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করে এ মাসের ২৭ তারিখে পরীক্ষা নেওয়া হবে। তবে কোথায় নেওয়া হবে জানতে চ্ইালে তিনি বলেন প্রধান শিক্ষকই স্থান নির্ধারন করবেন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.