কুবিতে ছাত্রলীগ নেতার হুমকিতে সাংবাদিক !

অন্যান্য জাতীয় শিক্ষা

স্বদেশ বাণী ডেস্ক : প্রকাশিত সংবাদের জের ধরে দৈনিক আজকের পত্রিকার কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি সাজ্জাদ বাসারকে হল থেকে বের করা ও দেখে নেয়ার হুমকি দিয়েছেন ইলিয়াস হোসেন সবুজ। সবুজ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের চার বছর আগে মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির সভাপতি। এছাড়া টিভি অনলাইনের কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি সাফায়িত সিফাতকে ‘হ্যাডম’ দেখাবেন বলেও শাসিয়েছেন তিনি।

সাজ্জাদ বাসার ও সাফায়িত সিফাত কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

রোববার (২৪ জুলাই) রাত ১১ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় তিনি সব হল থেকে প্রেস ক্লাবের সাংবাদিকদের নামিয়ে দেবেন বলে হুমকি দেন। তার সাথে থাকা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক খায়রুল বাশার সাকিবকে বঙ্গবন্ধু হল থেকে সংবাদকর্মীদের নামিয়ে দিতে আদেশও দেন।

এ সময় তার সাথে থেকে দুই সাংবাদিককে শাসান বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. রেজাউল ইসলাম মাজেদ, কাজী নজরুল ইসলাম হলের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) নাজমুল হাসান পলাশ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) খায়রুল বাসার সাকিবসহ আরও কয়েকজন।

এদিকে, এই ঘটনায় ২৫ জুলাই (সোমবার) ভুক্তভোগী দুই সাংবাদিক বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন। সর্বশেষ, সাজ্জাদ বাসার ও সাফায়িত সিফাত থানায় জিডির প্রস্তুতি নিচ্ছেন। সাজ্জাদ বাসার ও সাফায়িত সিফাত জানান, রোববার তারা রাতের খাবার শেষ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে কথা বলছিলেন। এ সময় তাদের ডেকে নিয়ে যায় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

দুই সংবাদকর্মীর অভিযোগ, কথাবার্তার একপর্যায়ে ইলিয়াস ও মাজেদ তাদের করা সংবাদের প্রসঙ্গ তুলে এবং উত্তেজিত হয়ে যায়। তারা সাজ্জাদ ও সিফাতকে বলেন, ‘ভেবেছিস তোদের হ্যাডম আছে তাই যা ইচ্ছে লিখে ফেলছস। এবার দেখবি আমাদের কি হ্যাডম।’

তারা আরও জানান, ইলিয়াসকে প্রকাশিত সংবাদের ব্যাপারে কোনো মন্তব্য থাকলে প্রতিবাদ দেয়ার কথা বলা হলেও তিনি ক্রমেই আরও আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠেন। একপর্যায়ে তিনি প্রেসক্লাবে যুক্ত থাকা সাংবাদিকদের হলে থাকতে দেবেন না বলে জানান।

হুমকি প্রদানের ব্যাপারে কুবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজ বলেন, ‘কোনো হুমকি দেয়ার ঘটনা ঘটেনি। আমরা দুজনের সাথে শুধু কিছু কথা বলেছি। আওয়ামী লীগ এখন ক্ষমতায় আছে, তাদের ভাতৃপ্রতিম সংগঠন ছাত্রলীগ নিয়ে লিখবে আর ছাত্রলীগ কিছু করবে না। এটা হতে পারে না।’

স্ব.বা/ম

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.