নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে এগিয়ে যাচ্ছে দেওপাড়া ইউপির উন্নয়ন

রাজশাহী

সারোয়ার হোসেন : দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় তরুণ চেয়ারম্যান বেলাল উদ্দিন সোহেলের পরিকল্পনায় দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার দেওপাড়া ইউনিয়ন বাসীর জীবন মানোন্নয়ন। জানা গেছে, তরুণ চেয়ারম্যান হিসেবে বেলাল উদ্দিন সোহেল দেওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে নৌকা প্রতীকে বিজয়ী লাভ করেন। আর খুব অল্প সময়ের মধ্যে ইউনিয়ন বাসীকে দেয়া নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে ব্যাপক দৌড়ঝাঁপ শুরু করেন চেয়ারম্যান বেলাল উদ্দিন সোহেল। ফলে চেয়ারম্যান বেলাল উদ্দিন সোহেলের প্রচেষ্টায় ইউনিয়ন বাসীর দীর্ঘদিনের প্রত্যাশার উন্নয়ন কাজ শুরু হওয়ায় ইউপি বাসীর মধ্যে দেখা দিয়েছে ব্যাপক উৎস উদ্দীপনা।

দেওপাড়া ইউপির বেশকিছু জনসাধারণের সাথে কথা বলা হলে তাঁরা জানান, এর আগে আওয়ামী লীগ দলীয় চেয়ারম্যান পরপর দুইবার থাকলেও জনগণের প্রত্যাশা পুরোন করতে পারেনি। এই চেয়ারে যেই বসেছে সেই জনগণের উন্নয়নের কথা না ভেবে নিজের উন্নয়ন আত্মীয় স্বজনের উন্নয়ন করে নিয়েছেন। একটি বার কেউ জনগণের কথা ভাবে নি। কিন্তু এবার দেওপাড়া ইউপির উন্নয়ন করতে যেন মহান আল্লাহ তায়ালা নিজ হাতে বেলাল উদ্দিন সোহেলকে পাঠিয়েছেন। প্রথমবারের মতো দেওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদে তরুণ সমাজসেবক হিসেবে বেলাল উদ্দিন সোহেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পরেই যেন জাদুর মতো উন্নয়ন যোগ্য কাজকর্ম হতে শুরু করেছে ইউনিয়নে।

তাঁরা আরো বলেন, দেওপাড়া ইউনিয়নে বিগত ২০বছরে যে উন্নয়ন হয়নি সে উন্নয়ন দুই বছরে করতে সক্ষম হতে চলেছেন চেয়ারম্যান বেলাল উদ্দিন সোহেল। দেওপাড়া ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ড সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, যেসব কাঁচা রাস্তা ছিলো সেগুলো পাকা রাস্তায় পরিনত হয়েছে। রাস্তার পাশে থাকা পুকুর ঘাট প্রটেকশান ওয়াল,প্রতিটি মোড়ে মোড়ে স্ট্রীট লাইট সোলার লাগিয়ে করে দেয়া হয়েছে আলোকিত। প্রতিটি ওয়ার্ডে পানি নিষ্কাসনের জন্য ডেন কালভার্ট নির্মাণ করা হয়েছে এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কর্মী নিয়োজিত রাখা হয়েছে। খাবার পানির জন্য গ্রামের পাড়ায় পাড়ায় মটার পাম্প স্থাপন করে ট্যাপের লাইন করে দেয়া হয়েছে।

চেয়ারম্যানের পরিষদ ভবনে গিয়ে দেখা যায়, ঘন্টার পর ঘন্টা সময় ধরে একাধারে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন চেয়ারম্যান। তাঁর অফিস কক্ষে বড় ছোট বয়স্ক বৃদ্ধ কৃষক শ্রমিক জনসাধারণ কোন ভেদাভেদ নেই, সকল শ্রেণী পেশার মানুষ সেবা নিচ্ছেন,অনেকের জন্ম নিবন্ধন সনদ, নাগরিকত্ব, চারিত্রিক সনদ পত্র সহ বিভিন্ন কাজের বিষয়ে ভুলট্রুটি হলে চেয়ারম্যান নিজে গিয়ে তা সঠিক ভাবে করে দিতে ত্যাগিদা দিয়ে আসছেন পরিষদের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের। এতে করে একজন তরুণ চেয়ারম্যান হিসেবে বেলাল উদ্দিন সোহেলের এমন নাগরিকদের সেবা প্রদানে খুব অল্প সময়ের মধ্যে মন ছুঁয়েছে ইউপি বাসীর হৃদয়ে।

তরুণ চেয়ারম্যান বেলাল উদ্দিন সোহেল বলেন,আনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বুকে ধারণ করে লালন করে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করি। আমার মত একজন ছোট্ট কর্মীকে নৌকার মনোনয়ন দেয়া হবে কখনোই ভাবতে পারিনি। অবশ্যই আমি আমার সঠিক মনোবল নিয়ে আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠনের কাজ করে যাচ্ছি বলেই দল থেকে আমাকে মনোনয়ন দিয়েছে। আর ইউনিয়ন বাসীও আমার উপর আস্থা আছে বলেই আমাকে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেছেন। তাই আমার দেয়া ইউনিয়ন বাসীকে নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে রাজশাহী-১তানোর গোদাগাড়ী আসনের সংসদ ওমর ফারুক চৌধুরীর মাধ্যমে কাজ করে যাচ্ছি।

 

স্ব.বা/বা

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.