ঢাবি ক্যাম্পাসে প্রয়োজন ছাড়া যেতে মানা

শিক্ষা

স্বদেশবাণী ডেস্ক:  ঢাকা শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। বিভিন্ন অনুষ্ঠান, উৎসব–উদযাপন ছাড়াও ক্যাম্পাসটিতে গিয়ে বহু মানুষ সময় কাটান। এতে ক্যাম্পাস প্রাঙ্গন সব সময় হাট-বাজারের জমজমাট অবস্থায় থাকে। সপ্তাহের শুক্রবার ক্যাম্পাসে পা ফেলানোর জায়গা থাকে না।

সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসটিতে বহিরাগতদের নিয়ে সোচ্চার হয়েছেন। শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষও বহিরাগতরোধে ব্যবস্থা নিচ্ছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ‘প্রয়োজন ছাড়া’ নগরবাসীকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে না যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। প্রক্টর এ কে এম গোলাম রাব্বানী যুগান্তরকে বলেন, শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে বিনা প্রয়োজনে ক্যাম্পাসে না আসতে আমরা বরাবরই নিরুৎসাহিত করে থাকি, এখনও করছি। প্রয়োজনে বার বার আসুন, কিন্তু বিনা প্রয়োজনে আসবেন না। শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় না থাকলে জাতির বড় ক্ষতি হবে। নিরাপদ ক্যাম্পাস নিশ্চিতের জন্যই আমরা কাজ করছি।

প্রক্টর বলেন, ক্যাম্পাসকে পার্ক বা বিনোদনকেন্দ্রের মতো ব্যবহার করা যাবে না। শিক্ষার পরিবেশ সমুন্নত রাখতে আমরা সবার সহযোগিতা চাই। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস আড্ডার জায়গা নয়, আড্ডার জায়গা হলো পার্ক, রেস্তোরাঁ ও কফি হাউজ

গত কয়েক দিন ক্যাম্পাসে অভিযান চালিয়ে কয়েক ডজন গাড়ির মালিককে জরিমানা করা হয়েছে বলে জানান প্রক্টর। তিনি বলেন, ক্যাম্পাসের সড়কে ভারি যানবাহনের চলাচল ও বহিরাগত নিয়ন্ত্রণে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল টিম এবং পুলিশের সহযোগিতায় শিক্ষার্থীদের একটি অংশও নিয়মিত অভিযান চালাচ্ছে। ক্যাম্পাসের টিএসসি এলাকার পাশে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ফটকের সামনের ভাসমান দোকানগুলোও উচ্ছেদ করা হয়েছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *