ভিখারির মত কাজ খুঁজতেন শহিদ কাপুর

বিনোদন

স্বদেশবাণী ডেস্ক :  ২০১৯ সাল বলিউড অভিনেতা শহিদ কাপুরের জন্য ছিলো মুগ্ধতার বছর। বক্স অফিস কাঁপিয়ে মুক্তি পেয়েছিল তার অভিনীত সিনেমা  ‘কবীর সিং’। দুর্দান্ত সফল হওয়ার সুবাদে রাতারাতি এক ধাক্কায় অনেকটাই এগিয়ে যান শহিদ।

শুধু ভারতের বাজার থেকেই ২৫০ কোটি টাকা তুলেছিল ‘কবীর সিং’! পরবর্তী সময়ে শহিদ নিজেও স্বীকার করেছিলেন এই সিনেমার এমন অভাবনীয় সাফল্যের পর ক্যারিয়ারের এক নতুন দিগন্ত খুঁজে পেয়েছিলেন তিনি।

এরপর থেকে শহিদ সেইসব পরিচালকের কাছে যাওয়া শুরু করেন, যাদের পরিচালনায় এক একেকটি সিনেমা ইতোমধ্যে বলিউডে ২০০থেকে ২৫০ কোটি টাকার ক্লাবে এন্ট্রি করেছে।

 

শহীদ কাপুরের ভাষ্য ‘‘ কবীর সিং এর অভাবনীয় সাফল্যের পর ভিখারির মতো নামিদামি পরিচালক, প্রযোজকদের দুয়ারে দুয়ারে ঘুরেছিলাম, যাদের পরিচালিত, প্রযোজিত সিনেমা ইতোমধ্যে বক্স অফিস থেকে তুলে নিয়েছে ২০০ থেকে ২৫০ কোটি টাকা।’’

এর কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ‘‘কবীর সিংয়ের আগে আমার আর কোন সিনেমা এত টাকা ব্যবসা করেনি। ব্যাপারটা সম্পূর্ণ আমার কাছে নতুন ছিল। তাই বুঝে উঠতে পারছিলাম না কী করা উচিত। এর আগে কোনো দিনও ২০০ কোটির ক্লাবের সদস্য ছিলাম না। তাই সত্যিই জানতাম না কী করব। সেইসময় ওই পরিচালকদের কাছে গিয়ে নিজেকে হাজির করে কাজ চাওয়াটাই সঠিক মনে হয়েছিল আমার।’’

সম্প্রতি, ‘জার্সি’ সিনেমার ট্রেইলার রিলিজ অনুষ্ঠানে নিজের মুখে এসব কথা বলেছেন শহিদ।

‘জার্সি’’ প্রসঙ্গে শহিদ বলেন, ‘‘প্রথমে এই সিনেমার প্রস্তাব আমি ফিরিয়ে দিয়েছিলাম। পরে  আমার স্ত্রী এবং ম্যানেজারকে নিয়ে অরিজিনাল ভার্সনটি দেখতে গিয়ে কেঁদে দিয়েছিলাম। তারপরই ঠিক করি সিনেমাটি আমি করবো।’’

বক্তব্যের শেষে সংযোজন করে তিনি বলেন, ‘‘আজ বলতে পারি আমার ক্যারিয়ারে এখন পর্যন্ত সেরা সিনেমা হতে চলেছে জার্সি।’’

উল্লেখ্য জার্সি সিনেমাটি একই নামের একটি তেলেগু সিনেমার আদলেই নির্মিত। যেখানে প্রতিভাবান কিন্তু অসফল এক ক্রিকেটারের গল্প উঠে এসেছে।

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *