আমিই এখন শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক: নিপুণ

বিনোদন লীড

স্বদেশ বাণী ডেস্ক: নিজেকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দাবি করে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন চিত্রনায়িকা নিপুণ।

মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) বিএফডিসিতে আয়োজিত হঠাৎ সংবাদ সম্মেলন করে তিনি জানান, চেম্বার আদালত হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেছেন। তাই আপিল বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নিপুণ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সাধারণ সম্পাদক। আর সে দায়িত্ব পালনে আইনি কোনও বাধা নেই।

নিপুণ বলেন, ‘ফুল বেঞ্চে যে শুনানি হয়েছে, তাতে দুটি রায় হয়েছে। একটিতে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেছেন চেম্বার আদালত। মানে আপিল বোর্ড অনুযায়ী আমি বৈধ সাধারণ সম্পাদক ও সেভাবেই শপথ নিয়েছি। এবং চেয়ারে বসেছি। পাশাপাশি স্থিতাবস্থা দিয়েছেন। মানে যে যেভাবে আছে সেভাবেই থাকবে। অর্থাৎ যেহেতু আমি শপথ নিয়ে কার্যক্রম শুরু করেছিলাম, আমি আমার কাজ চালিয়ে যাবো।’

অন্যদিকে, শিল্পী সমিতির নির্বাচনে আপিল বোর্ডের প্রধান নির্মাতা সোহানুর রহমান সোহান বলেন, ‘গতকাল আদালতের ফুল বেঞ্চ শুনানিতে আমাকে ও বোর্ডের সদস্য মোহাম্মাদ হোসেনকে ধন্যবাদ জানানো হয়। এবং আমাদের কাজের প্রশংসা করা হয়। আশা করি দ্রুত সমস্যার সমাধান হবে।’

ভোটে জয়ী সাধারণ সম্পাদক চিত্রনায়ক জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের আপিল বোর্ডের দেওয়া সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে জারি করা রুল শুনানির জন্য আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করেছেন হাইকোর্ট।

আজ (১৫ ফেব্রুয়ারি) বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে জায়েদ খানের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন সিনিয়র অ্যাডভোকেট মো. ইউসুফ হোসেন হুমায়ূন, অ্যাডভোকেট আহসানুল করিম ও অ্যাডভোকেট নাহিদ সুলতানা যুথি। চিত্রনায়িকা নিপুণের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ।

এর আগে গত ৭ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ শিল্পী সমিতি নির্বাচনের আপিল বোর্ডের প্রার্থিতা বাতিলের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন জায়েদ খান। হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিটটি দায়ের করেন তার আইনজীবী নাহিদ সুলতানা যুথি।

হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে গত ৮ ফেব্রুয়ারি আপিল আবেদন জানান নিপুণ। আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালতে শুনানির পর গত ৯ ফেব্রুয়ারি এ বিষয়ে আদেশ দেন আদালত।

চেম্বার আদালত বাংলাদেশ শিল্পী সমিতি নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদের ওপর স্থিতাবস্থা জারি করেন। একইসঙ্গে গত ১৩ ফেব্রুয়ারি নিপুণ আক্তারের আবেদনের ওপর আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির দিন নির্ধারণ করেন। পাশাপাশি গত ১৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদে কেউ দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না বলেও আদালত তার আদেশে জানিয়েছিলেন।

এরপর গত ১৪ ফেব্রুয়ারি মামলাটি আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানি হয়। শুনানি শেষে চেম্বার আদালতের আদেশ বহাল রেখে হাইকোর্টকে রুল নিষ্পত্তির নির্দেশ দেন প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ।

স্ব.বা/ও

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *