নোবেলের অর্থে হাসপাতাল করবেন নাদিয়া

আন্তর্জাতিক

নোবেল পুরস্কার থেকে পাওয়া ৫ লাখ ডলারের পুরোটা দিয়ে হাসপাতাল বানাবেন এ বছর শান্তিতে নোবেলজয়ী ইরাকের নাদিয়া মুরাদ। যৌন নির্যাতনের শিকার নারী ও কিশোরীদের জন্য উত্তর ইরাকে নিজ শহর সিনজারে এ হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন তিনি।

জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের যৌনদাসী থেকে মানবাধিকার চ্যাম্পিয়ন নাদিয়া শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘নোবেল পুরস্কার থেকে যে অর্থ আমি পেয়েছি, তা দিয়ে সিনজারের অসুস্থ মানুষের জন্য একটি হাসপাতাল নির্মাণ করব। প্রধানত আইএস যোদ্ধাদের হাতে নির্যাতিত নারীদের চিকিৎসার সুযোগ থাকবে এ হাসপাতালে।

শনিবার এ খবর দিয়েছে রয়টার্স। যৌন সহিংসতার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়া কঙ্গোর ডাক্তার ডেনিস মুকওয়েজ (৬৩) ও ইরাকের ইয়াজিদি সম্প্রদায়ের নারী অধিকারকর্মী নাদিয়া মুরাদ (২৫) সোমবার নোবেল শান্তি পুরস্কার গ্রহণ করেছেন। নাদিয়া ও ডেনিস এ বছর যৌথভাবে শান্তি পুরস্কার পেয়েছেন। তারা অসলোতে সে পুরস্কার গ্রহণ করবেন।

নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটি অক্টোবরে তাদের নোবেল বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করে। যুদ্ধের অস্ত্র ও সশস্ত্র সংঘাতে যৌন সহিংসতার ব্যবহার বন্ধ করার প্রচেষ্টা চালানোয় নাদিয়া ও ডেনিসকে এ পুরস্কার দেয়া হয়। ডেনিসকে ‘ডক্টর’ মিরাকেল হিসেবে ডাকা হয় তার সার্জারির দক্ষতার জন্য। তিনি ২০ বছর ধরে যুদ্ধবিধ্বস্ত ডিআর কঙ্গোর পূর্বাঞ্চলে নারীর ওপর ধর্ষণের ভয়াবহ ক্ষত ও তীব্র মানসিক আঘাত থেকে মুক্ত করতে চিকিৎসাসেবা দিয়ে আসছেন।

Spread the love
  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    8
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published.