ইসলামবিদ্বেষের বিরুদ্ধে লড়ছেন প্রথম মুসলিম নারী মেয়র ফারাহ

আন্তর্জাতিক

স্বদেশবাণী ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া রাজ্যের ইরভিন শহর তথা মার্কিন মুল্লুকের প্রথম মুসলিম নারী মেয়র ফারাহ খান।

২০২০ সালের ৩ নভেম্বর ফারাহ খান ৩ লাখ মানুষের শহরটির মেয়র হিসেবে নির্বাচিত হন। ৮ ডিসেম্বর তিনি মেয়রের দায়িত্বে আসীন হন।খবর আনাদোলুর।

নির্বাচনের প্রচারণা থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত তাকে বিরোধী দলের উসকে দেওয়া ইসলামবিদ্বেষের বিরুদ্ধেও লড়তে হচ্ছে।

২০১৮ সালের নির্বাচনে তিনি এ শহরের একজন কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচিত হন।

কিন্তু ২০২০ সালে তিনি ১২ জন মেয়র প্রার্থীর মধ্যে সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম নারী মুসলিম মেয়র নির্বাচিত হন।

এ জন্য তাকে কম ভোগান্তি পোহাতে হয়নি। একদিকে ইসলামফোবিয়া, অন্যদিকে বাকি ১১ জন প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণার বিরুদ্ধে টিকে থাকা- দুই চ্যালেঞ্জকে মোকাবিলা করেছেন দৃঢ়তার সঙ্গে।


দুই ছেলের জননী ফারাহ খানের বিরুদ্ধে বর্ণবাদী ও ধর্মীয় উগ্রবাদীরা উঠে পড়ে লাগে নির্বাচনে অংশ নেয়ার পর থেকেই।

কিন্তু এতকিছুর পরও দমে যাওয়ার পাত্রী নন তিনি, স্থানীয় বাসিন্দাদের বোঝাতে সক্ষম হয়েছেন- তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দেয়া হচ্ছে। ধর্মীয়বিদ্বেষ ছড়িয়ে আসলে রাজনৈতিক ফায়দা নেয়ার চেষ্টা করছে তারা।

আজারবাইজান সফরের কারণে ২০২০ সালের নির্বাচনের সময় বিরোধী দলের রাজনীতিকরা তার বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে ধর্মীয় বিদ্বেষের অভিযোগ দায়ের করেন। অবশ্য পরে তা ধোপে টিকেনি।

কারণ তার জন্ম ও বেড়ে ওঠা যুক্তরাষ্ট্রেই। এখানকার মূলধারা সঙ্গেই তার ওঠাবসা। ২০০৪ সালে সানফ্রানসিসকো থেকে তার পরিবার ক্যালিফোর্নিয়ায় আসে। স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পড়াশোনা শেষ করেন ক্যালিফোর্নিয়ায়।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *