চীনা জাহাজের দীর্ঘমেয়াদি উপস্থিতি: ফিলিপাইনের কূটনৈতিক প্রতিবাদ

আন্তর্জাতিক

স্বদেশবাণী ডেস্ক: ফিলিপাইনের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলের জলসীমায় এখনো চীনের ১৬০ টি জাহাজ ঘোরাফেরা করছে। দীর্ঘদিন ধরে চীনের জাহাজের উপস্থিতির কূটনৈতিকভাবে প্রতিবাদ জানাচ্ছে ফিলিপাইন। দেশটির পররাষ্ট্র বিভাগ (ডিএফএ) এ তথ্য জানিয়েছে।

ফিলিপাইনের পররাষ্ট্রবিভাগের পক্ষ থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলা হয়, দেশের জলসীমায় চীনা জাহাজের দীর্ঘমেয়াদি উপস্থিতির প্রতিবাদ জানিয়ে গত ২১ এপ্রিল নতুন একটি কূটনৈতিক নোট প্রকাশ করা হয়েছে। এই জাহাজগুলোর উপস্থিতি ফিলিপাইনের সার্বভৌমত্ব, সার্বভৌম অধিকার এবং অধিকারের সীমা স্পষ্টভাবে লঙ্ঘন করছে।

এর আগে গত ২০ এপ্রিল ডিএফএর পক্ষ থেকে বলা হয়, ফিলিপাইনের জলসীমায় ১৬০টি মাছধরার জাহাজ এবং মিলিশিয়া জাহাজ দেখা যাচ্ছে। এই জাহাজগুলো ফিলিপাইন এক্সক্লোসিভ ইকোনমিক জোনের (ইইজি) কলায়ন দ্বীপ এবং বাজো দে মাসিনলকের আঞ্চলিক জলসীমার মধ্যে জাহাজগুলোর উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে।

এছাড়া পাগ-এসা আইল্যান্ড, বাজো দে মাসিনলক এবং আয়ুনগিন শোয়ালে চীনা কোস্ট গার্ডের পাঁচটি জাহাজ দেখা গিয়েছে।

ফিলিপাইনের পররাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ের দেয়া বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, ‘চীনা জাহাজগুলোর অব্যাহত ও ঝুঁকিপূর্ণ উপস্থিতি এখানে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করেছে। এটি চীনের দেয়া এ অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষার প্রতিশ্রুতির বিপরীত কর্মকাণ্ড।’

জুলিয়ান ফিলিপ রীফে চীনা জাহাজের অব্যাহত উপস্থিতি নিয়ে ফিলিপাইন দৈনিক কূটনৈতিক বিক্ষোভ দায়ের করা শুরু করেছে। এছাড়া ফিলিপাইনের অর্থনৈতিক অঞ্চলে দীর্ঘসময় ধরে চীনা জাহাজের অবস্থানের কারণ দর্শাতে দেশটিতে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত হুয়াং ঝিলিয়ানকে তলব করেছে তারা। সূত্র: ডেইলি এক্সপ্রেস

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *