কানাডার স্কুলে মিলল ২১৫ শিশুর লাশ, স্তম্ভিত ট্রুডো

আন্তর্জাতিক লীড

স্বদেশবাণী ডেস্ক: কানাডার একটি বোর্ডিং স্কুল থেকে মিলল ২১৫টি শিশুর দেহাবশেষ! স্কুলটি ৪০ বছর আগেই বন্ধ হয়ে যায়। গত শুক্রবার (২৮ মে) খবরটি সামনে আসায় স্তম্ভিত হয়ে পড়েন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। তিনি এই ঘটনাকে হৃদয়বিদারক বলে উল্লেখ করেন।

শিশুগুলো ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় কামলুপস ইন্ডিয়ান রেসিডেন্সিয়াল স্কুলের ছাত্র ছিল। স্কুলটি ১৯৭৮ সালেই বন্ধ হয়ে যায়। একজন স্থল অনুপ্রবেশকারী রাডার বিশেষজ্ঞের সহায়তায় বিষয়টি সম্পর্কে কর্তৃপক্ষ অবগত হয়।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষের তরফে বলা হয়েছে, এই মুহূর্তে ঘটনাকে কেন্দ্র করে আমাদের উত্তরের চেয়ে প্রশ্নই বেশি। প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো এক টুইট বার্তায় লিখেছেন- খবরটি আমার মনকে ভারাক্রান্ত করে তুলেছে। এই দুঃসহ সংবাদ আমাকে আমার দেশের অন্ধকার ও লজ্জাজনক ইতিহাসের কথাই মনে করিয়ে দিয়েছে।

জানা গেছে, আগেই এই স্কুলের বিরুদ্ধে এই সংক্রান্ত কেলেঙ্কারির ঘটনা সামনে এসেছিল। তখন একটি রিপোর্টও তৈরি করা হয়েছিল। রিপোর্ট জানিয়েছিল, আবাসিক শিশুদের ওপর অকথ্য শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালানো হতো। পড়ুয়ারা অপুষ্টিতে ভুগতো। সেই সময়- বিভিন্ন পর্বে যে লাখখানেক পড়ুয়া বিভিন্ন সময়ে এই বোর্ডিং স্কুলে পড়েছে, সকলেই এর শিকার হয়েছিল। এটিই ছিল কানাডার বৃহত্তম বোর্ডিং স্কুল। যার পরিচালনায় ছিল অটোয়ার খ্রিস্টান গীর্জাগুলো।

এর আগে ২০০৮ সালেও প্রথম পর্যায়ে ৪ হাজার ১০০ শিশুর মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছিল। সে সময় কানাডা সরকার এই ঘটনার জেরে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছিল। আর এবার মিলল ২১৫ শিশুর পুঁতে ফেলা দেহাবশেষ। সূত্র- জিনিউজ।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *