সরকার বিএনপিকে শক্তিশালী ভূমিকায় দেখতে চায়: ওবায়দুল কাদের

জাতীয় লীড

স্বদেশবাণী ডেস্ক: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা আগেও বলেছি, এখনও বলছি। বিরাজনীতিকরণ তো নয়ই, বরং সরকার গণতন্ত্রের স্বার্থে, সুস্থ রাজনীতির স্বার্থে, আরও সক্ষম এবং শক্তিশালী বিরোধীদল চায়।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) সকালে ৮ম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার ওপর খাতওয়ারি আলোচনা সভায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি একথা জানান। ওবায়দুল কাদের তার সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সেন্সের মাধ্যমে আলোচনা সভায় যুক্ত হন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা বলতে চাই, আওয়ামী লীগ কারও বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে না। বরং জন্মলগ্ন থেকে আওয়ামী লীগকে ষড়যন্ত্রের শিকার হতে হয়েছে অনেকবার। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে আওয়ামী লীগ দেশ, মাটি ও মানুষের পাশে থেকে এদেশে উন্নয়নের কাজ করে যাচ্ছে। শেখ হাসিনা সরকার গণতন্ত্রে বিশ্বাসী। জনগণের আস্থা নিয়েই এগিয়ে চলেছে সমৃদ্ধ আগামী নির্বাচনে। এ অগ্রযাত্রায় বিরোধীদলের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বিএনপি তাদের ভুল রাজনীতির খেসারত দিতে গিয়ে নির্বাচন কমিশন ও সরকারের উপর মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছে। নির্বাচনকে ভয় পেয়ে যারা নির্বাচনের দিন হঠাৎ করে সরে দাঁড়ায় এটা তাদের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। তারা জনগণ থেকে স্বাভাবিকভাবে বিচ্ছিন্ন। তাদের হঠকারিতাই তাদেরকে জনগণ থেকে দূরে সরিয়ে দিচ্ছে। এই বিচ্ছিন্নতা বুঝতে পেরে বিএনপি বিরাজনীতিকরণের কল্পিত অভিযোগ আনছে সরকারের বিরুদ্ধে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সরকার বিএনপিকে শক্তিশালী ও দায়িত্বশীল ভূমিকায় দেখতে চায়, পেতে চায় গণতান্ত্রিক অভিযাত্রায় সহযোগী শক্তি হিসাবে। কোনো দলকে রাজনীতিবিমূখ করা সরকারের কাজ নয়, কোনো এজেন্ডা নেই। কোনো দল অন্য দলকে বিরাজনীতিতে নিতে পারে না যতক্ষণ ওই দল জনগণের কথা বলে। বিএনপির আসলে জনবিরোধী ভূমিকা তাদের আত্মবিশ্বাসে চির ধরিয়েছে। সেই জন্য বিরাজনীতিকরণের কথা বলছে। তাদের সিনিয়র নেতারাই রাজনীতিতে অনেকে এখন নিষ্ক্রিয় হয়ে যাচ্ছেন। নেতৃত্বের প্রতি অনাস্থায়। তাদের নেতারাই এখন বলছেন বিএনপি একটা কোমর ভাঙা রাজনৈতিক দল।’

বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে কাদের বলেন, ‘সরকারের নূন্যতম কোনো ইচ্ছা নেই বিএনপিকে দুর্বল করার। বিএনপি নিজেই তাদের ক্ষতির জন্য যথেষ্ট।’

৮ম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার ওপর খাতভিত্তিক ভার্চুয়াল সভায় পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য ও সিনিয়র সচিব সামসুল আলমের সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে আরও সংযুক্ত ছিলেন রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন, ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তফা জব্বারসহ আইসিটি বিভাগ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিবসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সচিব এবং দফতর প্রধানরা।

 

 

স্ব:বা/না

 

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *