‘গণমাধ্যম যত শক্তিশালী হবে, ন্যায়ের শাসন ততবেশি প্রতিষ্ঠিত হবে’

জাতীয় লীড

স্টাফ রিপোর্টার, নাটোর : আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, সাংবাদিকরা সাহসিকতা, মেধা, সহনশীলতা ও ধৈর্য্য নিয়ে কাজ করেন। তারা না বলা ও চাপা পড়া কাহিনী তুলে আনেন বলেই আমরা জানতে পারি। তারা সমাজের আয়না বা দর্পন। এই গণমাধ্যমেই সমাজের সকল ভালো-মন্দ, অনিয়ম, এগিয়ে যাওয়া, পিছিয়ে পড়া সবকিছু প্রতিফলিত হয়। সমাজের সকল ভাল মন্দ,অসংগতি, এগিয়ে যাওয়া, পিছিয়ে পড়া সবোর্পরি প্রতিনিয়ত যা ঘটছে তাই তুলে আনেন তারা। আর গণমাধ্যমে সেসকল সাংবাদিক বন্ধুগণ কাজ করছেন তাদের অনেক সাহসিকতা, মেধা এবং সহনশীলতা নিয়ে কাজ করতে হয়। গণমাধ্যম যতবেশি শক্তিশালী হবে, আমাদের সমাজে ন্যায়ের শাসন ততবেশি প্রতিষ্ঠিত হবে।

তিনি বলেন, ১১ বছর আগে সাংবাদিকদের খবর পাঠাতে যেমন একদিন সময় লেগেছে,তেমনি পাঠকের কাছে খবর বা সংবাদপত্র হাতে পাওয়ার জন্য একদিন অপেক্ষা করতে হয়েছে। কিন্তু বর্তমানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কল্যানে ডিজিটাল প্রযুক্তির সুবিধা ভোগ করছেন সাংবাদিক বা গণমাধ্যম কর্মীরা। এখন মোবাইল ফোনের মাধ্যমে দুর্গম গ্রাম থেকে দ্রুত সংবাদ প্রেরন এবং লাইভ করতে পারছেন সাংবাদিকরা। এই যুগান্তকারী পরিবর্তন সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সময়োপযোগী ও দুরদর্শিতা নেতৃত্বের ফলে।

প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের আমলেই গনমাধ্যম স্বাধীনতা ভোগ করছে। তার কারনেই বহু গণমাদ্রম সৃষ্টি হয়েছে। সেই সাথে কর্মসংস্থানেরও সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। সাংবাদিকদের ডিজিটাল প্রযুক্তিতে আরও দক্ষ করে তুলতে আইসিটি মন্ত্রনালয় থেকে প্রশিক্ষন সহ প্রয়োজনীয় সহযোগীতা করার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

মঙ্গলবার সিংড়া মডেল প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে ইন্টারনেটে দেয়া বক্তব্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এসব কথা বলেন। তিন আরও বলেন, আমরা দেখেছি গত ৮ মাসে করোনা মহামারীতে সম্মুখ যোদ্ধা হিসেবে পুলিশ বাহিনী, প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সকলেই কাজ করেছে। কিন্তু, সাংবাদিক ভাই-বোনেরা যদি নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বিভিন্ন সমস্যাগুলো তুলে না ধরতেন তবে গত ৮ মাসে আমরা এই মহামারী মোকাবেলায় হয়তো এতোটা সফল হতে পারতাম না। তাই, একজন রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে, একজন গণমাধ্যম পরিবারের সদস্য হিসেবে আমি বলতে চাই, আমি আপনাদের পাশে ছিলাম, আছি এবং আমৃত্যু আমি আপনাদের পাশে থাকবো।

মডেল প্রেস ক্লাবের সভাপতি রাজু আহমেদের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, সিংড়া পৌর মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস, নাটোর ইউনাইটেড প্রেসক্লাবের সভাপতি নবীউর রহমান পিপলু, সহকারী পুলিশ সুপার সিংড়া সার্কেল জামিল হাসান, এটিএন বাংলা প্রতিনিধি জুলফিকার হায়দার জোসেফ, বিটিভি প্রতিনিধি জালাল উদ্দিন, সিংড়া ডায়াবেটিস সমিতির সাধারণ সম্পাদক মওলানা রুহুল আমিন, সিংড়া মডেল প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম প্রমুখ।

আলোচনা সভার আগে শহরে একটি বনার্ঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রা শেষে কেক কেটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *