প্রতিকূলতায়ও লক্ষ্যচ্যুত হবো না: ডিএসসিসি মেয়র

জাতীয়

স্বদেশবাণী ডেস্ক: যত প্রতিকূলতাই আসুক, সমস্যা আসুক না কেন, সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য থেকে বিচ্যুত না হওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

নগর ভবনের মেয়র হানিফ অডিটরিয়ামে আজ অনুষ্ঠিত কর্পোরেশনের দ্বিতীয় পরিষদের পঞ্চম বোর্ড সভায় তিনি এই প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। মেয়র বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী যে লক্ষ্য স্থির করে দিয়েছেন, সেটাই আমাদের লক্ষ্য। সে লক্ষ্য পূরণে এ করোনা মহামারির মাঝেও মানব উন্নয়ন সমীক্ষা-২০২০ এ দুই ধাপ এগিয়েছে। জনগণের কাছে এসব ইতিবাচক অগ্রগতি তুলে ধরতে হবে। এসব অগ্রগতিই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদৃঢ় নেতৃত্বের প্রতিফলন। তাঁর বলিষ্ঠ নেতৃত্বে আমরা এগিয়ে চলেছি। সুতরাং আমরা সেই লক্ষ্য থেকে কোনভাবে বিচ্যুত হবো না। যত প্রতিকূলতায় আসুক, যত সমস্যা আসুক ইনশাল্লাহ আমরা ঐক্যবদ্ধ থেকে প্রতিহত করব এবং উন্নত বাংলাদেশের উন্নত রাজধানী হিসেবে ঢাকাকে আমরা গড়ে তুলবো।’

মেয়র এ সময় কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আমরা যে লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে চলেছি সে লক্ষ্যে আপনাদেরকে গতিশীল হতে হবে। আমরা এখনও সে গতি সঞ্চার করতে পারিনি। আশা করি সেই গতি সঞ্চারে আপনারা আরও বেশি উদ্যোমী হবেন, উদ্যোগী হবেন।’

অবকাঠামো রাস্তা সংস্কার ফুটপাত নর্দমা নির্মাণের যে কার্যক্রমগুলো রয়েছে সেগুলো সময় মতো সম্পন্ন হয়নি বরং অনিশ্চয়তা দেখা দিচ্ছে উল্লেখ করে ব্যারিস্টার শেখ তাপস প্রকৌশল বিভাগকে বলেন, সূচি নির্ধারণ করে কাজগুলো সম্পন্ন করুন। আর কোন সময় বৃদ্ধি করা হবে না। নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে ঠিকাদাররা কাজ সম্পন্ন করে তারপরে বিল পাবে। সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে। যাতে নতুন কাজগুলো যথাসময়ে শুরু করা যায়। এ সময় তিনি কাউন্সিলরসহ উপস্থিত সকলকে ইংরেজি নববর্ষের আগাম শুভেচ্ছা জানান।

পরে বোর্ড সভার আলোচ্যসূচি অনুযায়ী ৯ সদস্য বিশিষ্ট বাজার মূল্য পর্যবেক্ষণ, মনিটরিং ও নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক স্থায়ী কমিটি গঠন করা হয়। এ সময় মেয়র ৯ সদস্যবিশিষ্ট কমিটির সদস্যদের নাম প্রস্তাব করলে উপস্থিত সকলে একযোগে তা অনুমোদন করেন।

৪৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. শহীদ উল্লাহকে সভাপতি করে গঠিত বাজার মূল্য পর্যবেক্ষণ, মনিটরিং ও নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক স্থায়ী কমিটির বাকি সদস্যরা হলেন- সাধারণ আসনের ৬৪ নম্বর ওয়ার্ডের মো. মাসুদুর রহমান মোল্লা, ৬৮ নম্বর ওয়ার্ডের মাহমুদুল হাসান, ৫০ নম্বর ওয়ার্ডের মাসুদ মোল্লা, ২২ নম্বর ওয়ার্ডের জিন্নাত আলী, ৬১ নম্বর ওয়ার্ডের মো. জুম্মন মিয়া এবং সংরক্ষিত আসনের ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের নাজমা বেগম, ২১ নম্বর সংরক্ষিত আসনের সেলিনা খান ও ২ নম্বর সংরক্ষিত আসনের মাকসুদা শমসের।

সভায় ডিএসসিসির কাউন্সিলরদের পদমর্যাদা যুগ্ম সচিব সমমানে উন্নীত করতে স্থানীয় সরকার বিভাগে পত্র পাঠানোর বিষয়ে সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়াও কাউন্সিলরদের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধিসহ আলোচ্যসূচি অনুযায়ী অন্যান্য বিষয়েও আলোচনা হয়।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *