ভূমিমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি লাভ

জাতীয় লীড

স্বদেশবাণী ডেস্ক: ‘ভূমি মন্ত্রণালয়ের স্বচ্ছ ও জবাবদিহিমূলক সরকারি প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিকাশ লাভ ও সেবা ডিজিটালাইজিং’-এ অসামান্য অবদান রাখার স্বীকৃতি স্বরূপ ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরীকে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক সংগঠন ‘ওয়ার্ল্ড বুক অব রেকর্ডস’ সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে।

রবিবার বাংলাদেশ সচিবালয়ে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে যুক্তরাজ্য থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে ‘ওয়ার্ল্ড বুক অব রেকর্ডস’-এর সভাপতি ড. দিবাকর সুকুল আনুষ্ঠানিকভাবে ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরীর প্রতি সম্মাননা উপস্থাপন করেন ও উপর্যুক্ত কাজের জন্য ভূমিমন্ত্রীর নাম প্রতিষ্ঠানটির রেকর্ডবুকে তালিকাভুক্ত করার কথা অবহিত করেন।

পরে সংগঠনটির বাংলাদেশ অংশের সভাপতি রাওমান স্মিতা ভূমিমন্ত্রীর হাতে সম্মাননা সনদপত্র তুলে দেন।

এ সময় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ভূমি সচিব মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করে ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী অনুষ্ঠানে বলেন, ‘ওয়ার্ল্ড বুক অব রেকর্ডস’র সম্মাননা পেয়ে আমি অত্যন্ত আনন্দিত এবং সম্মানিত বোধ করছি। আমি মনে করি এ অর্জন কেবল আমার নয়- এই অর্জন পুরো মন্ত্রণালয়ের। প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ঠ নেতৃত্ব আজ আমাদের এই অর্জন।’

সাইফুজ্জামান চৌধুরী আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন মধ্যম আয়ের দেশের তালিকায় উন্নীত হয়েছে। আমাদের আরও বেশি চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হবে। আমাদের ‘মাইন্ডসেট’ বদলিয়ে ‘বৃত্তের বাইরে’ চিন্তা করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘মন্ত্রণালয় ও এর আওতাভুক্ত দপ্তর/সংস্থার সহকর্মীদের আমি সবসময় বলি কর্মক্ষেত্রে দক্ষতা, স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে পারলে অনেক সমস্যার সমাধান হয়ে যায়। কাজে সততা ও আন্তরিকতা থাকলে সব সহজাত হয়ে যায়। কর্মদিয়েই মানুষের পরিচয়।’

ভূমিমন্ত্রীকে উৎসাহ ও প্রেরণার উৎস বর্ণনা করে ওয়ার্ল্ড বুক অফ রেকর্ডস এর চেয়ারম্যান বলেন, ‘ভূমি সেবা ডিজিটালাইজেশন কেবল সচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করবেনা – মানুষের অধিকারও নিশ্চিত করবে। এ সময় তিনি যুক্তরাজ্যে বিভিন্ন ক্ষেত্রে কর্মরত প্রবাসী বাঙ্গালীদের অসাধারণ কর্মকাণ্ডের কথা তুলে ধরেন।’

ভূমি সচিব ভূমিমন্ত্রীকে সম্মাননার জন্য মনোনীত করার জন্য ওয়ার্ল্ড বুক অফ রেকর্ড কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘মন্ত্রীর এ প্রাপ্তি আমাদের আমাদের সবার জন্য প্রেরনাদায়ক। এটা আমাদের আরও ভালোভাবে কাজ করার জন্য উৎসাহ যোগাবে।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ভূমি সংস্কার বোর্ডের চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তফা কামাল, ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোঃ তসলীমুল ইসলাম, ভূমি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব প্রদীপ কুমার দাস সহ ভূমি মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ ও ‘ওয়ার্ল্ড বুক অব রেকর্ডস’ এর বাংলাদেশ অংশের বিভিন্ন সদস্য।

উল্লেখ্য, ওয়ার্ল্ড বুক অব রেকর্ডস বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ঘটে যাওয়া অসাধারণ অর্জনসমূহ যাচাই ও তালিকাভুক্ত করণ পূর্বক সনদ প্রদানকারী যুক্তরাজ্য ভিত্তিক একটি সংগঠন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *