অভাবে ওষুধ কিনতে না পেরে মারা গেলেন সেই আ.লীগ নেত্রী

জাতীয় লীড

স্বদেশবাণী ডেস্ক: টাকার অভাবে ওষুধ কিনতে না পেরে মারা গেলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী সুলতানা সাহা (৬৫)।

রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থেকে তার মৃত্যু হয়।

সুলতানা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদরের পাইকপাড়ার কিরণ চন্দ্র সাহার স্ত্রী। তিনি  জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সক্রিয় সদস্য। আওয়ামী লীগ বিরোধী দলে থাকার সময় দলের আন্দোলন-সংগ্রামে তার সক্রিয় অংশগ্রহণ ছিল। তার স্বামী সামান্য বেতনে একটি ফ্লাওয়ার মিলে অফিস সহায়ক পদে চাকরি করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক জামাল হোসেন তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, সুলতানার সংসারে অভব-অনটন সবসময় লেগেই থাকত।  একমাত্র ছেলেও মানসিক প্রতিবন্ধী হওয়ায় কিরণ-সুলতানা দম্পতির কষ্টের শেষ ছিল না।

সুলতানা দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন। গত ১৪ এপ্রিল বাড়ির আঙিনায় হোঁচট খেয়ে পড়ে গিয়ে কোমরের হাড় ভেঙে যায় সুলতানার। পরে তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু ওষুধ কেনার সামর্থ্য ছিল না সুলতানার পরিবারের।

জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত ব্যক্তিগতভাবে তাকে সহায়তা করেন। চিকিৎসকরা সুলতানাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন।

জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত বলেন, আমি সবসময় আমার সাধ্যমতো সুলতানা সাহার পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ারও প্রস্তুতি চলছিল। তবে তার আগেই তিনি মারা গেলেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *