ফতুল্লায় গ্যাস বিস্ফোরণে দগ্ধ নারীর মৃত্যু

জাতীয় লীড

স্বদেশবাণী ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার তল্লা জামাইবাজার এলাকায় গ্যাস বিস্ফোরণে দগ্ধ ১১ জনের মধ্যে আলেহা বেগম (৪২) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।

ঢাকা মেডিকেলের বার্নিক ইউনিটের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন রোববার রাত ১টায় তিনি মারা যান।

নিহত ওই নারীর মেয়ে দগ্ধ মীম আক্তারের স্বামী বিল্পব জানান, দগ্ধ মীম আক্তারের স্বামী তিনি।  গাজীপুরে একটি গার্মেন্টে কাজ করায় তিনি ওই বাড়িতে মাসে একবার খোঁজখবর নিতে আসতেন। তাই ঘটনার পর থেকে তিনিই হাসপাতালে থেকে পরিবারের ছয়জনের চিকিৎসা করাচ্ছেন। এ পর্যন্ত অনেক টাকা খরচ হয়েছে তাদের চিকিৎসায়। এখন ধারদেনার জন্য কারও কাছেই টাকা পাচ্ছেন না।

বিপ্লব আরও জানান, তার শাশুড়ি আলেয়া বেগম আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার শরীরের ৯৫ ভাগ দগ্ধ হয়েছে। তার শ্বশুর হাবিবুর রহমান (৫৬), শ্যালক লিমন (২০), স্ত্রী মীম আক্তার (২২), তার দুই মাসের শিশুপুত্র মাহির আহমেদ ও নানি শাশুড়ি সমেত্তা বেগমকে (৬৫) বেডে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

তাদের মধ্যে আলেহা বেগমকে দুই ব্যাগসহ আরও আট ব্যাগ রক্ত সংগ্রহ করতে বলেছেন চিকিৎসক। নির্ধারিত সময়ে রক্ত সংগ্রহ করতে না পারায় তার শাশুড়ি আলেহা বেগম মারা গেছেন। তাদের শরীরের রক্ত একেকজনের একেক গ্রুপ। তাই রক্ত কিনতে হবে।

তিনি বলেন, আমাদের পরিবারের দগ্ধ সাতজনের মধ্যে আমার শ্যালিকা সাথী সুস্থ হয়েছে এবং দুর্ঘটনায় দগ্ধ আরেক পরিবারের চারজনের সবাই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

দুর্ঘটনার পর সদর ইউএনও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২০ হাজার টাকা দেয়া হয়; সেই টাকা প্রথম দিনেই শেষ হয়ে গেছে। এর পর থেকে নিজের জমানো ও কিছু ঋণ করে চিকিৎসা চলছে। এখন কি করব চিন্তা করছি।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার ভোরে বিস্ফোরণের পর পরিদর্শনে গিয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ ওই বাড়িটি সিলগালা করে দেয়া হয়। দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসককে আহ্বায়ক ও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে সদস্য সচিব করে সাত সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়।

ওই সময় উপজেলা নিবাহী কর্মকর্তা আরিফা জহুরা জানিয়েছিলেন, একজন নারীকে শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটের আইসিইউতে রাখা হয়েছে। শিশু ুহ ওই নারীর অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে বার্ন ইউনিটের ডাক্তাররা জানিয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যরা সবাই নিম্নআয়ের মানুষ। তাদের চিকিৎসার জন্য কোনো আর্থিক সহযোগিতার প্রয়োজন হলে উপজেলা প্রশাসন থেকে করা হবে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *