চিকিৎসার অভাবে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত বৃদ্ধার মৃত্যু

জাতীয়

স্বদেশবাণী ডেস্ক:  ভোলা চরফ্যাশনের নীলকমল ইউনিয়নের দুলারহাটে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত বৃদ্ধা আনোয়ারা বেগম (৬৫) মারা গেছেন। অর্থ সংকটে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা না পেয়ে বুধবার রাতে চর নুরুল আমিন গ্রামে ছেলে বারেকের বাড়িতে এই বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে বলে স্বজনরা জানিয়েছেন।

নিহত আনোয়ারা ওই গ্রামের মৃত জয়নাল আবেদিনের স্ত্রী। দুলারহাট থানা পুলিশ  নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে। পরে তার লাশ দাফন করা হয়। স্থানীয়রা বৃদ্ধার ওপর হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

নিহতের ছেলে বারেক অভিযোগ করেন, তার বোন তারা বেগম তার মালিকানাধীন ১০ শতাংশ জমি চাচাতো ভাই আবু তাহেরের কাছে বিক্রি করেন। কিন্তু স্থানীয় ইউপি সদস্য ইউসুফের (পানি ইউসুফ) নির্দেশে তার চাচাতো ভাইয়ের ওয়ারিশ মফজল, জুয়েল, নিরব, শাহাজাহান, শাহাবুদ্দিন, শিপন, সুরমা বেগম, বাদশা ওই জমির মালিকানা দাবি করে আবু তাহেরকে জমির দখল দিতে বিরোধিতা করে আসছেন।

গত ২৯ মার্চ তার মা আনোয়ারা বেগম তার ঘর মেরামতকালে মফিজুল ইসলাম মজু গংরা ওই জমি জবরদখলের চেষ্টা করেন। এ সময় মজু গংরা ইউপি সদস্য ইউসুফের (পানি ইউসুফ) নির্দেশে তাকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন। প্রতিবেশীরা বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে চরফ্যাশন হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এখানে দুই দিন চিকিৎসার পর তাকে বরিশালে রেফার করেন চিকিৎসক। কিন্তু অর্থ সংকটের কারণে চিকিৎসার জন্য বরিশাল না নিয়ে তাকে বাড়ি নিয়ে যান প্রতিবেশীরা।
এ ঘটনায় ১৪ এপ্রিল বৃদ্ধার ছেলে বারেক বাদী হয়ে নীলকমল ইউপি সদস্য ইউসুফ ওরফে পানি ইউসুফসহ ৯ জনকে আসামি করে দুলারহাট থানায় মামলা করেন।

এদিকে বৃদ্ধার মুত্যুর পর অভিযুক্তরা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ায় অভিযোগের বিষয়ে তাদের বক্তব্য জানা যায়নি।

দুলারহাট থানার ওসি মোরাদ হোসেন জানান, বৃদ্ধাকে মারধরের ঘটনায় বৃদ্ধার ছেলে বাদী হয়ে ১৪ এপ্রিল একটি মামলা করেছে। মামলাটি তদন্তনাধীন অবস্থায় বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। আমরা লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছি। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *