মুক্তিযোদ্ধাকে পেটালেন আ’লীগ নেতা

জাতীয়

স্বদেশবাণী ডেস্ক: ফেনীর দাগনভূঞায় আওয়ামী লীগ নেতা আবদুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হোসেনকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার বিকালে উপজেলার সিন্দুরপুর ইউনিয়নের দিলপুর গ্রামের টুকা মিয়ার বাড়ির দরজায় এ ঘটনা ঘটেছে।

নির্যাতিত ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সিন্দুরপুর ইউনিয়নের সত্যপুর ৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুর রাজ্জাক ২০২০ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি পার্শ্ববর্তী দিলপুর গ্রামের হাজি টুকা মিয়ার ছেলে মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হোসেনের কাছ থেকে জমি কেনার জন্য ৫০ হাজার টাকায় বায়না করেন।

দীর্ঘদিন ধরে জমি রেজিস্ট্রি না করে বায়নার টাকা ফেরত চান ওই আওয়ামী লীগ নেতা। সোমবার বিকালে বায়নার টাকার জন্য তোফাজ্জল হোসেনের বাড়িতে যান ক্রেতা রাজ্জাক। জমি কেনার বায়নার টাকা ফেরত চাইলে জমি বিক্রেতা তোফাজ্জল হোসেন বাকি টাকা দিয়ে জমি রেজিস্ট্রি করে নেওয়ার অনুরোধ করেন।

এ সময় আব্দুর রাজ্জাক ক্ষিপ্ত হয়ে তোফাজ্জল হোসেনকে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মেরে জখম করেন। স্থানীয় লোকজন আহতের চিৎকারে এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে দাগনভূঞা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

ওইদিন রাতে মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হোসেন বাদী হয়ে উপজেলার সত্যপুর গ্রামের তাজুল ইসলামের ছেলে আওয়ামী লীগ নেতা আবদুর রাজ্জাককে আসামি করে থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ নেতা আবদুর রাজ্জাক জানান, জমিতে নানা সমস্যা থাকায় তিনি জমি কিনতে ইচ্ছুক নন। বায়নার টাকা চাওয়ায় ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। মারধরের ঘটনা সঠিক নয়।

থানার ওসি মো. ইমতিয়াজ আহমেদ অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *