লেখাপড়া নিয়ে বকাঝকা করায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কিশোরীর আত্মহত্যা

জাতীয়

স্বদেশবাণী ডেস্ক: ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলায় মায়ের সঙ্গে অভিমান করে শারমিন আক্তার (১৬) নামে এক স্কুল ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। বুধবার রাত ৯টার দিকে সদর উপজেলার রামরাইল ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।


শারমিন উত্তরপাড়া এলাকার শেখ বাড়ির লিয়াকত হোসেনের মেয়ে। সে মোহাম্মদপুর ইউনাইটেড প্রি-ক্যাডেট স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্রী ছিল।
শারমিনের চাচা সোহাগ বলেন, বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে মোবাইলে ফ্রি ফায়ার গেম খেলা ও ঠিকমত পড়াশোনা না করার কারণে শারমিনকে তার মা বকাঝকা করে। এরপর রাত ৯টায় দিকে শোবার ঘরের সিলিংয়ে ওড়না পেঁচিয়ে সে আত্মহত্যা করে।
এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম বলেন, ঈদের দিন বান্ধবীর সঙ্গে ঘুরতে যাওয়ায় মা ধমক দিলে শারমিন নামের এক শিক্ষার্থী অভিমান করে আত্মহত্যা করে। তার লাশ উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।
ওসি আরও বলেন, ফ্রি ফায়ার গেম খেলতে না পেরে আত্মহত্যা করেছে কি না এ রকম কোনো অভিযোগ পাইনি। এ ব্যাপার থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *