পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে কানের লতি হারালেন ব্যবসায়ী

জাতীয়
স্বদেশবাণী ডেস্ক: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে দেনাদারদের হামলায় কান হারালেন কবির মিয়া (৩৩) নামে এক ব্যবসায়ী। উপজেলার অরুয়াইল ইউনিয়নের অরুয়াইল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
আহত কবির মিয়া বর্তমানে শেখ হাসিনা জাতীয় ইন্সটিটিউট অব বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে কবিরের চাচা আবু তাহের বাদী হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতনামা ৩-৪ জনকে আসামি করে সরাইল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
সরেজমিন গিয়ে কবির ও তার পরিবারের লোকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলের অরুয়াইল গ্রামের কবির মিয়া অরুয়াইল বাজারে কবির ক্রোকারিজের মালিক। হামলাকারী খায়রুল একই গ্রামের ফেরি করে কাপড় বিক্রয় করেন। গত ১ মাস আগে কবির মিয়ার কাছ থেকে ৮০ হাজার টাকা ধার নেন খায়রুল। পরে পাওনা টাকা দেওয়া নিয়ে টালবাহানা শুরু করে খায়রুল।
গত রোববার রাতে কবির মিয়া পাওনা টাকা চাইতে খায়রুলের বাড়িতে গেলে খায়রুল তাকে বকাঝকা করে এক পর্যায়ে তার ভাই দ্বীন ইসলামকে নিয়ে কবিরকে মারধর করে ও একটি ছুরি দিয়ে কবিরের বাম কান ও গাল কেটে দেয়। আহত কবিরকে রাতেই ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানকার চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা শেখ হাসিনা জাতীয় ইনস্টিটিউট অব বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি হাসপাতালে প্রেরণ করে। বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন আছে কবির মিয়া।
এ ব্যাপারে সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সালাউদ্দিন হোসেন যুগান্তরকে বলেন, আহত কবিরের চাচা বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনার পর  অভিযুক্তরা যদিও এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে। তবে আমরা দ্রুত আসামিকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনব।
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *