স্বর্ণালংকারসহ ৭ লক্ষাধিক টাকা নিয়ে উধাও ইউপি সদস্যের দ্বিতীয় স্ত্রী

জাতীয়
স্বদেশ বাণী ডেস্ক:  বরিশালের উজিরপুরে এক ইউপি সদস্য’র দ্বিতীয় স্ত্রী নগদ অর্থ, স্বর্ণালংকারসহ ৭ লাখ টাকার মালামাল নিয়ে পালিয়ে গেছেন। এ ঘটনায় বরিশাল আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন তিনি।
মামলা ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার শোলক ইউনিয়নের দামোদারকাঠী ৮নং ওয়ার্ডের মৃত আ. কাদের বেপারীর ছেলে ইউপি সদস্য মো. শাহজাহান বেপারী চলতি বছরের ১ মার্চ আলৈঝাড়া উপজেলার বেলুহার গ্রামে হারুন ভুইয়ার মেয়ে লাকি আক্তারকে (৪০) বিবাহ করেন।
লাকি আক্তার তার দ্বিতীয় স্ত্রী। স্বামী-স্ত্রী উভয়ে মিলে ধামুরা মজিবুর রহমানের বাসায় ভাড়া থেকে দাম্পত্য জীবন শুরু করেন। সবকিছু বেশ ভালো যাচ্ছিল। কিন্তু গত ৪ আগস্ট শাহজাহান বেপারী বাসায় ছিলেন না। এই সুযোগে রাত ৮টার দিকে লাকি আক্তার জমি বিক্রির ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ব্যবসার জন্য জমানো ২ লাখ ২৬ হাজার টাকা, দেড় ভরি স্বর্ণালংকার, দুইটি মোবাইল ফোনসহ ৭ লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে পালিয়ে যান।
এ ঘটনায় ইউপি সদস্য শাহজাহান বেপারী ১৯ আগস্ট বরিশাল এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে লাকি আক্তার ও তার নিকট আত্মীয় সবুর হাওলাদার (৩৫), আশিক হাওলাদার (২০), হায়দার ভূইয়া (৩০), বোন সোনিয়া বেগমকে (৩২) আসামি করে মামলা দায়ের করেন। এছাড়া উজিরপুর মডেল থানা ও ইউনিয়ন পরিষদেও অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি।
কিন্তু আদালতে দুইটি মামলাসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দিয়েও সুরাহা পাননি তিনি। বারবার শালিস বৈঠকের কথা থাকলেও লাকি আক্তার ও তার পরিবারের লোকজন উপস্থিত হচ্ছেন না।
ঘটনার বিষয়ে শাহজাহান বেপারী বলেন, লাকি বেগম আমাকে ফুসলিয়ে প্রেমের সম্পর্কে বাধ্য করে। আমাদের বিবাহ হয়। তার গর্ভে আমার ৪ মাসের সন্তান রয়েছে। কিন্তু সে আমার সর্বস্ব কেড়ে নিয়েছে এবং তার বাবা মুক্তিযোদ্ধা সেই দাপট দেখিয়ে আমাকে মামলা তুলে নেওয়াসহ বিভিন্ন ভয়ভীতি ও ধরে নিয়ে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। বর্তমানে তিনি আতঙ্কে রয়েছেন বলেও জানান।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত লাকি আক্তারের বক্তব্য নিতে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে বারবার কল করা হলে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *