পাহাড় কেটে চেয়ারম্যানের বাড়ি, স্বপ্রণোদিত মামলায় প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ

জাতীয় লীড

স্বদেশ বাণী ডেস্ক: বান্দরবানের থানচিতে উপজেলা চেয়ারম্যানের বাড়ি তৈরির জন্য পাহাড় কাটার ঘটনায় আদালতের স্বপ্রণোদিত মামলায় থানচি থানার ওসিকে আগামী ৭ দিনের মধ্যে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দিয়েছেন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত। মঙ্গলবার বান্দরবান পার্বত্য জেলার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নাজমুল হোছাইন এ আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বান্দরবান চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের নাজির মো. সামির হোসাইন জানান, বান্দরবান জেলার থানচিতে উপজেলা চেয়ারম্যান থোয়াইহ্লা মং মারমা কর্তৃক প্রকাশ্যে পাহাড় কেটে বাড়ি নির্মাণ করার ঘটনায় যুগান্তরসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ পর্যালোচনা এবং প্রতিবেদনের আলোকে বিষয়টি অপরাধ হিসেবে গণ্য করেন আদালত। এজন্য স্বপ্রণোদিত হয়ে মঙ্গলবার থানচি থানার ওসিকে তদন্তপূর্বক আগামী ১৩ সেপ্টেম্বরের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নির্দেশ দিয়েছেন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নাজমুল হোছাইন।

স্থানীয়দের অভিযোগ, থানচি উপজেলা বাসস্টেশন থেকে আমতলীপাড়া যাওয়ার রাস্তার পার্শ্ববর্তী ইউনিয়ন পরিষদ এলাকায় থানচি উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি থোয়াইহ্লা মং মারমা পরিবেশ অধিদপ্তর এবং প্রশাসনের কোনো ধরনের অনুমোদন ছাড়াই তিন সপ্তাহ ধরে প্রকাশ্যে বসতবাড়ি নির্মাণের জন্য দুটি এক্সকেভেটর ব্যবহার করে পাহাড় কেটে সমান করেছেন। উন্নয়ন কাজের অজুহাতে ইতোমধ্যে পাহাড়ের বিশাল একটি অংশ কেটে অনেকটা সাবাড় করা হয়েছে। বিষয়টি গণমাধ্যমে লেখালেখি হওয়ায় পাহাড় কাটা বন্ধ রাখেন ক্ষমতাসীন দলের এই নেতা।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *