প্রবাসী ছেলের কাছে চাঁদা না পেয়ে ছড়িয়ে দিল মায়ের ভিডিও

জাতীয়

স্বদেশ বাণী ডেস্ক: সিলেটের কানাইঘাট উপজেলায় চার সন্তানের জননী পঞ্চাশোর্ধ এক নারীকে উদ্দেশ্যমূলকভাবে শ্লীলতাহানি ও তার ভিডিও ধারণ করে ছড়িয়ে দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। প্রবাসী ছেলের কাছে চাঁদা না পেয়ে দুর্বৃত্তরা এ কাণ্ড ঘটিয়েছে।

সোমবার রাতে ওই নারী বাদী হয়ে কানাইঘাট থানায় একই বাড়ির চারজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ও পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার আসামিরা হলেন- একই গ্রামের মো. আব্দুল্লাহ (৩৮), আবদুল্লাহ (২৭), জব্বার (২২), সাইদুল্লাহ (২৭)।

যুগান্তরকে এসব তথ্য নিশ্চিত করে কানাইঘাট থানার ওসি তাজুল ইসলাম জানান, ওই নারী বাড়িতে একা থাকতেন। এ সুযোগে ওই নারীর ওপর ভয়ঙ্কর নির্যাতন চালায় প্রতিবেশী চার যুবক। রাতে ঘরের দরজা ভেঙে প্রবেশ করে তার শ্লীলতাহানি করে ভিডিও ধারণ করে সেই ভিডিও প্রবাসী ছেলেদের কাছে পাঠিয়ে পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে তারা। মূলত ছেলেদের কাছ থেকে টাকা নিতেই তারা এটা করেছে। তাদের ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে।

এদিকে ওই নারীর এক আত্মীয় জানান, বিষয়টি সমাধানের জন্য একটি সালিশ বৈঠক হয়। ওই বৈঠকে ভিডিও ধারণকারীদের চার লাখ টাকা দেওয়ার ফয়সালা করে অগ্রিম এক লাখ টাকা দেওয়া হয়। গত শনিবার এ টাকা দেওয়ার কথা ছিল। টাকা না দেওয়ার এক দিন পর ভিডিওটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ার খবর পান তারা।

সালিশ বৈঠককারী কাউকে মামলায় আসামি করা হবে কিনা জানতে চাইলে ওসি তাজুল ইসলাম বলেন, যারা সালিশ বৈঠক করেছিলেন তারা ওই নারীর আত্মীয়। নারীর ছেলেদের অনুরোধে তারা চেষ্টা করেছিলেন টাকার বিনিময়ে ভিডিওটি উদ্ধার করার। তাই সালিশকারীদের বিরুদ্ধে নারীর কোনো অভিযোগ নেই।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *