রায়ের অপেক্ষায় সিনহার অর্থপাচার মামলা

জাতীয়

স্বদেশবাণী ডেস্ক:  অর্থ আত্মসাৎ ও পাচারের মামলায় সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাসহ (এস কে সিনহা) ১১ জনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে দায়ের করা মামলার রায় মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর)।
সাক্ষ্যগ্রহণ, আত্মপক্ষ সমর্থন ও যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে মামলাটির রায় ঘোষণার জন্য এইদিন ধার্য করে দিয়েছিলেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪-এর বিচারক শেখ নাজমুল আলম।
আইনজীবীরা জানিয়েছেন, রায় প্রস্তুত হলে ঘোষণা করবেন বিচারক। নতুবা নতুন করে দিন ধার্য করা হতে পারে।
বিচারপতি এস কে সিনহা বর্তমানে বিদেশে অবস্থান করছেন। এই মামলায় পলাতক দেখিয়ে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা রয়েছে। পলাতক থাকায় আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ হারান তিনি। কোনো মামলায় দেশের সাবেক কোনো প্রধান বিচারপতি এই প্রথম বিচারের মুখোমুখি হলেন।
বিচারপতি সিনহা ছাড়াও অপর আসামিরা হলেন- ফারমার্স ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এ কে এম শামীম, ব্যাংকের উদ্যোক্তা পরিচালক ও অডিট কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান মো. মাহবুবুল হক চিশতী (বাবুল চিশতী), সাবেক সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট (এসইভিপি) ও সাবেক ক্রেডিট প্রধান গাজী সালাহউদ্দিন, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট স্বপন কুমার রায় ও সাফিউদ্দিন আসকারী, ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. লুত্ফুল হক, টাঙ্গাইলের বাসিন্দা মো. শাহজাহান, একই এলাকার নিরঞ্জন চন্দ্র সাহা, রণজিত্ চন্দ্র সাহা ও তার স্ত্রী সান্ত্রী রায়।
এর মধ্যে বিচারপতি সিনহাসহ মোট চার আসামি পলাতক রয়েছেন। ২০১৯ সালের ১০ জুলাই দুদক পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন বাদী হয়ে বিচারপতি সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ ও পাচারের মামলা করেন। গত বছরের ১৩ আগস্ট সব আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিশেষ জজ আদালত।
প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের অক্টোবরে ছুটিতে যান বিচারপতি সিনহা। ছুটি নিয়ে বিদেশ যাওয়ার পর তার বিরুদ্ধে দুর্নীতি, অর্থ পাচার, আর্থিক অনিয়ম ও নৈতিক স্খলনসহ সুনির্দিষ্ট ১১টি অভিযোগ পাওয়ার কথা সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে জানানো হয়। পরে বিদেশ থেকেই তিনি পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে দেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *