পেঁয়াজের দাম এক মাস বেশি থাকবে : বাণিজ্য মন্ত্রণালয়

জাতীয়

স্বদেশবাণী ডেস্ক : দেশে পেঁয়াজের যথেষ্ট মজুদ থাকা সত্ত্বেও আগামী এক মাস দাম বেশি থাকবে বলে আশঙ্কা করছেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও স্থিতিশীল রাখতে কাজ করছে তারা।

সোমবার (১১ অক্টোবর) দুপুরে সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মজুত, সরবরাহ, আমদানি, মূল্য পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও স্থিতিশীল রাখার লক্ষ্যে আয়োজিত সভা শেষে সাংবাদিকদের কাছে এ শঙ্কার কথা জানান বাণিজ্যসচিব তপন কান্তি ঘোষ।

বাণিজ্য সচিব বলেন, “পেঁয়াজ, চিনি, তেল ও ডাল এই চার পণ্য নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বিশেষ করে পেঁয়াজ নিয়ে আমাদের দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে। তিন সপ্তাহ আগে ভোজ্য তেল ও চিনি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তখন চিনি ও ভোজ্যতেলের দাম নির্ধারণ করা হয়েছিল। পেঁয়াজের ক্ষেত্রে ভিন্ন, কারণ পেঁয়াজ শতকরা ৮০ ভাগ দেশে উৎপাদন হয়। মাত্র ২০ শতাংশ আমদানি করতে হয়। এর কিছু ভারত ও মিয়ানমার থেকে আমদানি করা হয়। তবে, সম্প্রতি ভারতে অতি বৃষ্টির জন্যে পেঁয়াজের দাম কিছু বেড়েছে। সেটার প্রভাবে দেশের ব্যবসায়ীরা পেঁয়াজের দাম কিছুটা বাড়িয়ে দিয়েছেন।”

তিনি আরও বলেন, “আমরা সংশ্লিষ্ট সব কর্তৃপক্ষকে এরইমধ্যে চিঠি দিয়েছি। এনবিআরকে শুল্ক প্রত্যাহারের জন্য বলা হয়েছে।”

ভোক্তাদের চাহিদা পূরণ ও বাজার স্থিতিশীল রাখতে মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানি করার পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, আয়োজিত সভায় ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। এছাড়া সভায় প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান, অতিরিক্ত সচিব এ এইচ এম শফিকুজ্জামান, ট্যারিফ কমিশনের প্রতিনিধিসহ বিভিন্ন স্টেকহোল্ডাররা উপস্থিত ছিলেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *