পাটুরিয়ায় ডুবে যাওয়া ফেরি তুলতে সময় লাগবে আরও ৩ দিন!

জাতীয়

স্বদেশবাণী ডেস্ক : পাটুরিয়াঘাটে ডুবে থাকা ফেরি আমানত শাহ উদ্ধারে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান জেনুইন এন্টারপ্রাইজ লিমিটেডের ৫০ সদস্যের ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে প্রাথমিক অনুসন্ধান চালাচ্ছে। ডুবে যাওয়া ফেরিটি তুলতে তিন থেকে চার দিন সময় লাগতে পারে বলে জানা গেছে।

সোমবার সকালে আসার পর চট্টগ্রাম থেকে বেসরকারি সংস্থা জেনুইন এন্টারপ্রাইজের দল এসে ঘাটে নামেন।

ফেরি উদ্ধারকারী জেনুইন এন্টারপ্রাইজের ডুবরি দলেন প্রধান আব্দুর রহমান বলেন, রোববারই নির্দেশ পেয়ে আমরা চট্টগ্রাম থেকে রওনা দিয়ে সোমবার ভোরে ঘাটে পৌঁছাই। দুপুর সাড়ে ১২টার দিয়ে প্রাথমিক অনুসন্ধান কাজ শুরু করা হয়েছে।

তিনি দাবি করেছেন, আগামী ৩-৪ দিনের মধ্যে ফেরিটি উদ্ধার সক্ষম হবেন তারা। এ ছাড়া আমাদের আরও সদস্য পথে রয়েছেন। তাদের সঙ্গে আসছে উদ্ধারকাজের মালামাল বোঝাই ট্রাক।

ডুবুরি দলেন প্রধান আব্দুর রহমান বলেন, নদী পথে আমাদের নিজস্ব ছয়টি উইন্স বার্জে ৬টি পন্টুনসহ আসছে ৬ ইঞ্চি ওয়্যার। প্রতিটি পন্টুন দিয়ে ৪০০ টন ওজন তুলতে সক্ষম।

তিনি বলেন, আমাদের ডুবরি দলসহ তিন ইঞ্চি ওয়্যার ঘাটে আসামাত্র প্রাথমিক সার্ভে কাজ শুরু হবে। তবে ফেরি উদ্ধারের মূলকাজ শুরু হবে চট্টগ্রাম থেকে নদী পথে ছয়টি উইন্স বার্জের আসা ছয়টি পন্টুন ভর্তি ইকুইভমেন্টস।

নদীর তলদেশ থেকে অক্ষত অবস্থায় ফেরিটি তুলতে আমাদের তিন থেকে চার দিন সময় লাগতে পারে।

এদিকে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহণ কর্তৃপক্ষের (বিআডব্লিউটিএ) যুগ্ম পরিচালক (উদ্ধার) ফজলুর রহমান বলেন, জেনুইন এন্টারপ্রাইজের সঙ্গে আমাদের প্রাথমিক চুক্তি সম্পাদন হয়েছে। তাদের সব ইকুইভমেন্টস এলে তারা ফেরি তোলার কাজ শুরু করবে।

এটি তুলতে কি পরিমাণ টাকা ব্যয় হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, জেনুইন এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড কর্তৃপক্ষ আমাদের কাছে দুই কোটি টাকা ডিমান্ড করেছে। আমরা তাদের জানিয়ে দিয়েছি ফেরি উদ্ধারের কাজ শুরু করতে। টাকার ফয়সালা পরে মিটবে।

এদিকে দুর্ঘটনার চতুর্থ দিন গত শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত ফেরির সঙ্গে ডুবে যাওয়ায় ১৪টি পণ্যবাহী যানবাহন ও চারটি মোটরসাইকেল উদ্ধার সম্পন্ন হয়েছে। এর পর উদ্ধার করা এসব যানবাহন মালিকদের কাছে হস্তান্তর করে শিবালয় পুলিশ।

উল্লেখ, গত ২৭ অক্টোবর সকাল পৌনে ১০টার দিকে পাটুরিয়া পাঁচ নম্বর ঘাট ১৪টি পণ্যবাহী যানবাহনসহ কয়েকটি মোটরসাইকেল নিয়ে আমানত শাহ ফেরিটি ডুবে যায়। মাঝপথে আসার পর পরই ফেরির পেছনের বাম দিক থেকে পানি ওঠতে থাকে।

সকাল পৌনে ১০টার দিকে পাটুরিয়ার ৪নং নম্বর ঘাটের পন্টুনে ভেড়ামাত্রই ফেরিতে তিনটি পণ্যবাহী যানবাহন দ্রুত ফেরি থেকে নেমে যায়। এ সময় আরেকটি পণ্যবাহী গাড়ি ফেরি থেকে নামার সময় ফেরিটির এক পাশ কাত হয়ে যায়। এ সময় ওই গাড়িটি নদিতে পড়ে যায়। এর পর পরই অন্যান্য যানবাহন নিয়ে পন্টুনের কাছে পদ্মা নদীতে ফেরিটি ডুবে যায়।

এর পর ডুবে যাওয়া যানবাহন উদ্ধারে কাজ শুরু করে ‘হামজা’। এতে ফায়ার সার্ভিস, নৌবাহিনী ও কোস্টগার্ডের সদস্যরা অংশ নেন। ঘটনার চতুর্থ দিনে গত শনিবার সকাল থেকে রুস্তম নামের বিআইডব্লিউটিএর উদ্ধারকারী আরেকটি জাহাজ উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *