ভারতের ‘পদ্মশ্রী পুরস্কার’ পেলেন কর্নেল কাজী সাজ্জাদ আলী জহির

জাতীয়

স্বদেশবাণী ডেস্ক : বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশ নেয়া প্রবীণ মুুক্তিযোদ্ধা কর্নেল কাজী সাজ্জাদ আলী জহির আজ ‘পাবলিক অ্যাফেয়ার্স’ এ ভারতের মর্যাদাপূর্ণ ‘পদ্মশ্রী পুরস্কার-২০২১’ প্রদান করা হয়েছে।

তিনি রাষ্ট্রপতি ভবনে এক অনুষ্ঠানে ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছ থেকে ভারতের চতুর্থ সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার ‘পদ্মশ্রী’ গ্রহণ করেন।

বিশিষ্ট রবীন্দ্র সংগীত বিশারদ সনজিদা খাতুনও ২০২১ সালের জন্য এই পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন।

 

পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, কেন্দ্রীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। ৭১ বছর বয়সী কর্নেল জহির ১৯৫১ সালের ১১ ই এপ্রিল কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দিতে জন্মগ্রহণ করেন এবং ১৯৬৯ সালের শেষে ক্যাডেট হিসেবে পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে যোগ দেন।

বাংলাদেশ স্বাধীনতা যুদ্ধ শুরু হলে আগস্টের শেষে তিনি পাকিস্তান থেকে পালিয়ে যুদ্ধে যোগ দিতে ভারতে আসেন। জহির ১৯৭১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে বাংলাদেশ স্বাধীনতা যুদ্ধে যোগ দেন। সূত্র জানায়, তিনি সিলেট অঞ্চলে ৪ নং সেক্টরের অধীনে ২য় আর্টিলারি বাহিনীর সংগঠিত করেন।

যুদ্ধে সাহসিকতার জন্য বাংলাদেশ সরকার তাকে ‘বীর প্রতীক’ উপাধি প্রদান করে। বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে অবদানের জন্য তাকে সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার ‘বাংলাদেশ স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার’ প্রদান করা হয়। তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধের প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের স্বীকৃতি প্রদানের জন্য ‘শুধুই মুক্তিযুদ্ধ’ নামের একটি সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন।

প্রতি বছর ভারত পদ্মবিভূষণ, পদ্মভূষণ এবং পদ্মশ্রী নামে তিনটি বিভাগে সম্মানজনক পদ্ম পুরস্কার প্রদান করে। ক্রীড়া, চিকিৎসা, শিল্প, সাহিত্য এবং অন্য বিভিন্ন ক্ষেত্রের মোট ১১৯ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব তাদের অসামান্য কাজের জন্য ভারতের মর্যাদাপূর্ণ ‘পদ্ম পুরস্কার-পদ্মবিভূষণ, পদ্মভূষণ এবং পদ্মশ্রী’ এর জন্য মনোনীত হয়েছেন।

তবে ভারত সোমবার একজন পেশাদার কূটনীতিক প্রয়াত সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী এবং বিশিষ্ট প্রত্নতাত্ত্বিক অধ্যাপক এনামুল হককে তাদের নিজ নিজ ক্ষেত্রে ব্যতিক্রমী ও অসামান্য অবদানের জন্য ‘পদ্ম পুরস্কার’ প্রদান করে।

বাংলাদেশের সাবেক হাইকমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলীকে পাবলিক অ্যাফেয়ার্স এ তৃতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার ‘পদ্মভূষণ’ এবং বিশিষ্ট বাংলাদেশী পন্ডিত অধ্যাপক এনামুল হককে প্রত্নতত্ত্বের জন্য ‘পদ্মশ্রী’ পুরস্কার প্রদান করা হয়।- বাসস

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *