শীত নামবে কবে?

জাতীয়

স্বদেশবাণী ডেস্ক: বাংলা পঞ্জিকা অনুযায়ী বাংলাদেশে কার্তিক মাস শেষ হয়ে অগ্রাহণ মাসে পড়েছে। সাধারণত পৌষ-মাঘ মিলে হয় শীতকাল। তবে তার আগের দু’মাস কার্তিক-অগ্রাহণে শীতের অনুভূতি মেলে। সেই হিসেবে এখনও শীত পুরোপুরি জেঁকে না বসলেও গত কয়েকদিনের হালকা বৃষ্টিতে শীত শীত অনুভূত হচ্ছে।

অনেকে এই বৃষ্টিপাতকে শীতের আগমনী বার্তা হিসেবে দেখলেও এর সঙ্গে শীতের কোন সম্পর্ক নেই বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

তারা পূর্বাভাস দিয়েছেন, নভেম্বর মাসের শেষের দিকে দেশের উত্তরাঞ্চলে এবং ডিসেম্বর মাসের প্রথমদিকে ঢাকাসহ সারাদেশে শীতের তীব্রতা বাড়তে পারে।

 

এখনও দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা শীতের মৌসুমের চেয়ে কয়েক ডিগ্রি বেশি থাকায় আপাতত শীত জেঁকে বসার কোনও সম্ভাবনা নেই।

এ বিষয়ে আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুস জানান, গত কয়েকদিন দিনের বেলা আকাশে মেঘ থাকায় সূর্যের তাপ সেভাবে পড়েনি। তাই তাপমাত্রা কিছুটা কমে গিয়েছে। কিন্তু দিনের তাপমাত্রা এখনও বেশি আছে।

তিনি আরও বলেন, “তাপমাত্রা মূলত নেমে যাচ্ছে রাতের বেলায়। এ কারণে মনে হতে পারে যে শীত পড়ছে। বিশেষ করে রংপুর, সিলেট অঞ্চলে রাতের তাপমাত্রা অনেকটাই কমে যাচ্ছে। কিন্তু তার মানে এই না যে শীত পড়েছে।”

এর কারণ হিসেবে তিনি জানান, রাতে শীত শীত অনুভূত হলেও দিনের বেলায় তেমন শীত নেই। দিনে আর রাতে তাপমাত্রার পার্থক্য এখনও দ্বিগুণের কাছাকাছি। যখন দিনের আর রাতের তাপমাত্রার পার্থক্য কমে আসবে, তখনই আমরা বলতে পারবো যে শীত পড়েছে।

আবহাওয়া অধিদফতর সূত্র বলছে, গত ১০ নভেম্বর রাতে দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ দেখা দিয়েছিল তবে সেটা দুদিন পরই দুর্বল হয়ে লঘুচাপে পরিণত হয়। নিম্নচাপ থাকাকালে ভারতের তামিলনাড়ু, অন্ধ্র প্রদেশ এবং শ্রীলঙ্কায় প্রচুর বৃষ্টিপাত হয়েছিল।

বর্তমানে দক্ষিণ আন্দামান সাগর এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় সৃষ্ট লঘুচাপটি মধ্য আন্দামান এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এটা ঘনীভূত হতে পারে।

দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর থেকে আগত লঘুচাপটির বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত অর্থাৎ পশ্চিমবঙ্গ ও উড়িষ্যার কয়েকটি অঞ্চলে বিস্তৃত রয়েছে। এরইমধ্যে তামিলনাড়ু ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি গুরুত্বহীন হয়ে পড়েছে। তবে সেটি দুর্বল হতে হতে প্রচুর মেঘ ভারতের দক্ষিণ উপকূল ছাপিয়ে বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গ পর্যন্ত চলে এসেছে।

এ কারণে বৃহস্পতিবার থেকেই ঢাকাসহ দেশটির বেশির ভাগ এলাকার আকাশ-বৃষ্টির খেলা চলে। যার কারণে হালকা শীত অনুভূত হচ্ছে। তবে শীত জেঁকে বসার সম্ভাবনা কয়েকদিনের মধ্যে নেই বলে আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে।
সূত্র : বিবিসি

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *