ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে মাদ্রাসার প্রিন্সিপালের কাণ্ড

জাতীয়

স্বদেশবাণী ডেস্ক: গাজীপুরের কাশিমপুরে ১৩ বছরের শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করা হয়। ওই সময় কৌশলে ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে রাখা হয়। পরে শিশুটিকে জিম্মি করে ১ বছর ধরে ধর্ষণ করে আসছিলেন মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মো. হাদিউজ্জামান (৩৮)।

এ ঘটনার অভিযোগে মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মো. হাদিউজ্জামানকে আটক করছে কাশিমপুর থানা পুলিশ। অভিযুক্ত ধর্ষণকারী যশোরের কেশবপুর থানার মির্জাপুর সরদারপাড়া গ্রামের মৃত জাবেদ আলী সরদারের ছেলে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কাশিমপুর থানাধীন একটি হাফিজিয়া মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল ওই শিশুর ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে দীর্ঘদিন যাবত ধর্ষণ করে। ইতোপূর্বে হাদিউজ্জামান আরও দুটি বিয়ে করেছেন।

এ ব্যাপারে কাশিমপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহাবুবে খোদা জানান, শিশুটির বাবার লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নারী ও শিশু নির্যাতন এবং পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, মামলার পরপরই কাশিমপুর থানার এসআই দীপঙ্কর রায়ের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে হাদিউজ্জামানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকালে ধর্ষকের কাছ থেকে ভিকটিমের ধর্ষণের ভিডিও ও ছবিসহ একটি স্মার্টফোন জব্দ করা হয়েছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *