আহত বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকের মৃত্যু, নৌকার অফিস ভাঙচুর

জাতীয় লীড

স্বদেশবাণী ডেস্ক :  যশোরের শার্শা উপজেলায় বাগআঁচড়া ইউনিয়নে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত মোস্তাফিজুর রহমান ধাবক (৪২) মারা গেছেন।

শনিবার ভোর রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থেকে মারা যান তিনি।

নিহত মোস্তাফিজুর রহমান ধাবক বাগআঁচড়া ইউনিয়নের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী আ. খালেকের সমর্থক। তিনি একই এলাকার খতিব ধাবকের ছেলে।

বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী আ. খালেক ধাবক জানান, গত ১৬ নভেম্বর রাতে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী ইলিয়াস কবির বকুলের সমর্থকরা তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ভর্তি করা হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

স্থানীয়রা জানান, শার্শা বাগআচড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আ. খালেক ধাবকের সমর্থকরা বাগআচড়া সাতমাইল পশুরহাট থেকে নির্বাচনী প্রচারণায় বেড় হন।

তারা বাগআচড়া বায়তুল মামুন জামে মসজিদের সামনে পৌঁছালে ওই ইউনিয়নের নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী ইলিয়াস কবির বকুলের সমর্থকরা তাদের ওপর হামলা চালায়। হামলায় বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুল খালেকের সমর্থক মোস্তাফিজুর রহমান ধাবকসহ আরও দুজন গুরুতর আহত হন।

উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ ভোরে মারা যায় মোস্তাক ধাবক।
এদিকে মোস্তাক ধাবকের মৃত্যুর সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে শনিবার সকালেই বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী আ. খালেকের সমর্থকরা বাগআচড়া বাজারে জড়ো হয়। তারা সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করে যান চলাচাল বন্ধ করে দেয়। এসময় নৌকার অফিস ভাঙচুর করে বিক্ষোভ করে তারা।

খবর পেয়ে পুলিশ পরিস্থিতি শান্ত করতে টহল ব্যবস্থা জোরদার করে।

শার্শা থানার ওসি বদরুল আলম জানান, নির্বাচনী সহিংসতায় আহত মোস্তাক ধাবক ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন ঢাকায়। এ ঘটনায় বাগআচড়া এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে সেখানে। তবে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *