ময়লার গাড়িতে চাপা পড়ে গেল নাঈমের স্বপ্ন

জাতীয় লীড

স্বদেশবাণী ডেস্ক : নাঈম হাসানের স্বপ্ন ছিল সে পড়ালেখা শেষ করে জজ হবে। ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করে নিজের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ রচনা করবে। তার স্বপ্ন বাস্তবায়নে পরিবার ও এলাকার নাম দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়বে। কিন্তু তা আর হলো না। অদক্ষ চালকের গাড়িচাপায় সেই স্বপ্নগুলো মাটির নিচে চাপা পড়েছে।

রাজধানীর গুলিস্তানে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ির চাপায় নিহত নটর ডেম কলেজছাত্র নাঈম হাসানের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ পৌরসভার পূর্ব কাজীরখিল এলাকায় গ্রামের বাড়িতে দ্বিতীয় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তার মরদেহ দাফন করা হয়। জজ হয়ে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করার স্বপ্ন নিয়েই পরপারে চলে গেলেন পরিবারের ছোট ছেলেটি।

পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নাঈম সমাপনী পরীক্ষা, জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়ে প্রথমে ঢাকা কলেজে ভর্তি হয়। পরে সে নটর ডেম কলেজে ভর্তি হয়েছে। সে কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের মানবিক বিভাগের ছাত্র ছিল।

নাঈম হাসানের মামা কুমিল্লা সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষক ফারুক আহমেদ কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, আমার ছেলের সমতুল্য ছিল নাঈম। খুব মেধাবী ছাত্র ছিল। জজ হয়ে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করার স্বপ্ন নিয়ে সে পড়ালেখা করছিল। কিন্তু ময়লা পরিষ্কারক যার গাড়ি চালানোর কোনো লাইসেন্স ছিল না, সে আমার ভাগ্নেকে হত্যা করেছে। আমি এ হত্যার সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

নাঈম হাসানের বাবা অবসরপ্রাপ্ত সেনাসদস্য শাহ আলম বলেন, আমার ছেলে তো এখন আর নেই। তার স্বপ্নগুলো কে বাস্তবায়ন করবে? তার স্বপ্নগুলো এখন থেকে গেল। আমি পল্টন থানায় মামলা করেছি। আমি ওই গাড়িচালকের উপযুক্ত বিচার চাই।

প্রসঙ্গত, গতকাল বুধবার দুপুরে গুলিস্তান মার্কেটের সামনে রাস্তা পার হওয়ার সময় দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় গুরুতর আহত হয় নাঈম। পরে পথচারীরা আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *