পদ্মার স্রোতে ব্যাহত ফেরি চলাচল, দৌলতদিয়ায় গাড়ির দীর্ঘ সারি

জাতীয় লীড

স্বদেশ বাণী ডেস্ক: পদ্মায় পানি বাড়ার সঙ্গে দেখা দিয়েছে তীব্র স্রোত। ফলে দেশের গুরুত্বপূর্ণ দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ব্যাহত হচ্ছে ফেরি চলাচল। দৌলতদিয়া ঘাট এলাকার ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের প্রায় চার কিলোমিটার সড়কে নদী পারের অপেক্ষায় আটকা পড়েছে কয়েকশ যানবাহন। এরমধ্যে অল্পকিছু যাত্রীবাহী বাস ও পচনশীল পণ্যবাহী ট্রাকও রয়েছে।

রোববার (১৯ জুন) বিকালে দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় গিয়ে এমন চিত্র দেখা যায়। এ সময় সিরিয়ালে থাকা অপচনশীল পণ্যবাহী ট্রাকগুলোকে ফেরির জন্য অপেক্ষা করতে হচ্ছে ৮ থেকে ১০ ঘণ্টা পর্যন্ত।

পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) সূত্র জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় পদ্মা নদীর পানি গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ঘাট পয়েন্টে ২১ সেন্টিমিটার পানি বেড়েছে। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় বেড়েছে আরও ৩৬ সেন্টিমিটার।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নদীতে তীব্র স্রোতের কারণে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। প্রতিটি ফেরি নদী পার হতে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ সময় লাগছে। এছাড়া এ রুটের ২০টি ফেরির মধ্যে চলাচল করছে ১৬টি। যে কারণে ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোয়ালন্দ টেকনিক্যাল পর্যন্ত প্রায় চার কিলোমিটার এলাকাজুড়ে পণ্যবাহী ট্রাকের সিরিয়াল রয়েছে।

এরমধ্যে এক থেকে দুই কিলোমিটার এলাকায় যাত্রীবাহী বাস ও পচনশীল পণ্যবাহী ট্রাকও রয়েছে। তবে জনদুর্ভোগ কমাতে যাত্রীবাহী যানবাহন ও পচনশীল ট্রাকগুলো অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পারাপার করছে ঘাট কর্তৃপক্ষ।

যশোর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী ট্রাকচালক আফজাল হোসেন বলেন, শনিবার রাত ৩টার দিকে দৌলতদিয়া ঘাট অভিমুখে যানবাহনের দীর্ঘ সারিতে আটকা পড়ি। দুপুর গড়িয়ে প্রায় বিকেল হতে চললো। এখনো ফেরির নাগাল পাইনি। কখন পাবো তাও বলতে পরছি না।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশন (বিআইডবিøউটিসি) সূত্র জানায়, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ২০টি ফেরির মধ্যে ছোটবড় মিলিয়ে ১৬টি ফেরি চলাচল করছে। বাকি চারটি ফেরির মধ্যে দুটি তীব্র স্রোতের বিপরীতে চলতে না পারায় বসিয়ে রাখা হয়েছে। এছাড়া অন্য দুটি ফেরি পাটুরিয়ার ভাসমান কারখানায় মেরামতে রয়েছে।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক প্রফুল্ল চৌহান জাগো নিউজকে বলেন, ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় দৌলতদিয়া ঘাট এলাকার নদীপারের অপেক্ষায় কিছু যানবাহন সিরিয়ালে আটকা পড়েছে। আশা করছি দ্রুত সময়ের মধ্যে এ চাপ কমে আসবে। তবে দুর্ভোগ কমাতে যাত্রীবাহী যানবাহন ও কাঁচামালের ট্রাকগুলো অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পারাপার করা হচ্ছে।

স্ব.বা/ রু

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *