৫ লাখ টাকার জন্য বৃদ্ধ বাবাকে কোপালেন ছেলে

জাতীয় লীড

স্বদেশ বাণী ডেস্ক: সমপ্রতি পাঁচ শতাংশ জমি বিক্রি করেছেন ফজর আলী (৭০)। জমি বিক্রির টাকা থেকে পাঁচ লাখ টাকা দাবি করে আসছিলেন দুই ছেলে আলী নুর ও আব্দুল আউয়াল। টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তারা প্রায়ই বাবার সঙ্গে ঝগড়া করতেন।সবশেষ সোমবার (৪ জুলাই) বাবার সঙ্গে ঝগড়া করেন ছেলে আলী নুর (৩৫)। ঝগড়ার এক পর্যায়ে ধারালো দা দিয়ে বৃদ্ধ বাবার হাত, পিঠ, কাঁধ ও শরীরের বিভিন্ন অংশে এলোপাতাড়ি কোপান। এ সময় ফজর আলী মাটিতে লুটিয়ে পড়লে অভিযুক্ত ছেলে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের শৈলাট গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।ছেলের দায়ের কোপে আহত ফজর আলী একই গ্রামের মৃত নিয়ত আলীর ছেলে।

ভুক্তভোগী ফজর আলীর মেয়ে মোছা. পাপন জানান, স¤প্রতি তার বাবা সোয়া ৫ শতাংশ জমি বিক্রি করেন। তার দুই ভাই আলী নুর ও আব্দুল আউয়াল অন্য জায়গায় বাড়ি করে বসবাস করছেন। তারা বাবার জমি বিক্রির টাকা থেকে পাঁচ লাখ টাকা দাবি করে আসছিলেন। টাকা না দেওয়ায় তারা প্রায়ই ফজর আলীর সঙ্গে ঝগড়া করতেন।

রোববার (৩ জুলাই) সকাল ১০টার দিকে আউয়ালের স্ত্রী বাড়িতে এসে টাকার জন্য ঝগড়া করেন। তিনি দেখে নেওয়ার হুমকিও দেন। সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে আলী নুর, তার স্ত্রী, ছেলে ও ভাই আউয়ালকে সঙ্গে নিয়ে দা হাতে বাবার বাড়ির সামনে অবস্থান করেন। তাদের গালিগালাজের শব্দ শুনে ফজর আলী বাড়ি থেকে বের হন। পরে কিছু বুঝে ওঠার আগেই আলী নুর ধারালো দা দিয়ে ফজর আলীর কাঁধ, হাত, পিঠ ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকেন। ফজর আলী অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে গেলে হামলাকারীরা চলে যান।

স্থানীয়রা ফজর আলীকে উদ্ধার করে শ্রীপুর হাসপাতালে নেন। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কতর্ব্যরত চিকিৎসক তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেন। বর্তমানে তিনি ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।ঘটনার পর জাতীয় সেবা নম্বর ৯৯৯-এ ফোন ঘটনাস্থলে যান শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আ. রাজ্জাক।

তিনি জানান, ঘটনার পরপরই অভিযুক্তরা পালিয়ে যান। এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স্ব.বা/ রু

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.