ফুটপাত দলখমুক্ত রাখার আহবান মেয়র লিটনের

রাজশাহী লীড

স্টাফ রিপোর্টার:
নগরী পরিচ্ছন্ন রাখতে নির্দিষ্ট স্থানে আবর্জনা ফেলা ও ফুটপাত দলখমুক্ত রাখার এ কার্যক্রমটি সফল করতে সম্মানিত মহানগরবাসীর সহযোগিতা কামনা করেছেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। আজ সকালে নগরীর আলুপট্টি মোড় হতে ফুটপাত দখলমুক্ত এবং নির্দিষ্ট স্থানে আবর্জনা ফেলার বিষয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে এ কার্যক্রম পরিচালনাকালে তিনি এ আহবান জানান। দায়িত্ব গ্রহণের পর নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি পূরণে সবুজ পরিচ্ছন্ন পরিবেশ বান্ধব বাসযোগ্য নগরী গড়ে তোলার জন্য রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

ফুটপাত দখলমুক্ত এবং নির্দিষ্ট স্থানে আবর্জনা ফেলার বিষয়ে নাগরিকদের উদ্বুদ্ধ করতে ব্যাপক কর্মসূচি পরিচালনা করছে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন। জনসচেতনতা সৃষ্টিতে নেয়া হয়েছে নানা উদ্যোগ। জনসচেতনতামূলক পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রচার, মাইকিং, মসজিদে মুসল্লিদের অবগতির জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রচার, ভ্রাম্যমান অভিযান পরিচালনা, লিফলেট বিতরণ, ডাস্টবিন বিতরণ অব্যহত রয়েছে। এরই অংশ হিসেবে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন এঁর নেতৃত্বে রাসিকের কাউন্সিলরবৃন্দের সমন্বয়ে নগরীর আলুপট্টি মোড় হতে কুমারপাড়া মোড় হয়ে সাহেব বাজার হয়ে রাজশাহী কলেজ হয়ে সিটি কলেজ হয়ে মালোপাড়া হয়ে গণকপাড়া হয়ে ভুবন মোহন পার্ক হয়ে নাজমুল হক উচ্চ বিদ্যালয় হয়ে নিউমার্কেট রোড হয়ে বিন্দুর মোড় হয়ে নগর ভবন গেট পর্যন্ত এ কর্মসূচী পালন করা হয়। এ সময় মেয়র ও কাউন্সিলরবৃন্দ দোকানদার ও ফুটপাতের ব্যবসায়ীদের পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে সচেতন করে লিফলেট ও প্রতিটি দোকানে একটি করে ডাস্টবিন বিতরণ করেন।

ফুটপাত পরিদর্শনকালে মেয়র ব্যবসায়ীদের মালামাল নিজ দোকানের মধ্যে রেখে ব্যবসা করতে অনুরোধ জানান। ফুটপাত দখল করে যারা দোকান বসিয়েছেন এবং যারা ফুটপাত দখল করে ব্যবসা করছেন তাদের সতর্ক করে নাগরিকদের হাটার জন্য ফুটপাত ছেড়ে দোকান বসাতে নির্দেশ দেন। যত্রতত্রভাবে গাড়ী পার্কিং না করার বিষয়ে সতর্ক করে সংশ্লিষ্ট গাড়ীর চালকদের সতর্ক করেন মেয়র। এছাড়াও রাস্তায় অবৈধভাবে গাড়ী পার্কিং বিষয়ে ট্রাফিক বিভাগকে আরো দায়িত্বশীল হবার নির্দেশ প্রদান করেন মেয়র।

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্ন বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত এ কর্মসূচি পালনকালে রাসিকের ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ আব্দুল মমিন, ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ তৌহিদুল হক সুমন, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আজিজুল আলম বেন্টু, মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক মোঃ ফিরোজ কবির সেন্টু, মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মীর তৌফিক আলী ভাদু, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শেখ মোঃ মামুনসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.