বাঘায় বিভিন্ন অপরাধে নারিসহ গ্রেপ্তার-৪

রাজশাহী লীড

বাঘা প্রতিনিধি:
রাজশাহীর বাঘায় গাঁজা বিক্রেতার বাড়িতে অফিযান চালিয়ে এক টোপলার ভেতর থেকে মাত্র ১ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করতে করেছে পুলিশ। স্থানীয়দের কাছে এর পরিমান বেশি বলে মনে হলেও এটাই সত্যি বলে দাবি করেছ পুলিশ। কিন্তু উদ্ধার করা গাঁজা জনসন্মুখে জব্দ করা হয়নি।

স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার (২৯-১-১৯) সন্ধ্যার আগে উপজেলার মীরগঞ্জ ভানুকর গ্রামের গাঁজা বিক্রেতা বাবলুর বাড়িতে গাঁজা সেবন করে বের হচ্ছিল লালপুরের মহিষখোলা গ্রামের ওসমানের ছেলে লাবেল। বাঘা থানার ২জন পুলিশ অফিসার- সহকারি উপ পরিদর্শক বিপেন ও রাকিবুল সংগীয় পুলিশ ফোর্স নিয়ে তাকে আটক করে বাবলুর বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে বাবলুকে আটকের পর তার বাড়ি থেকে গাঁজা রাখা টোপলা উদ্ধার করে। পরে আব্দুর রহিমের ছেলে বাবলু (বিক্রেতা) ও সেবনকারি লাবেলকে থানায় এনে তাদের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, যেহেতু বাবলু গাঁজা বিক্রি করে। সেই হিসেবে পরিমান বেশি থাকারই কথা। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সহকারি উপ পরিদর্শক রাকিবুল ইসলাম বলেন, ১ গ্রামই গাঁজাই পাওয়া গেছে। কেই যদি বেশির কথা বলে থাকলে তা সঠিক নয়।

এদিকে একই দিন রাতে পৌর এলাকার চক ছাতারি গ্রামের হোটেল ব্যবসায়ী গোলাম হোসেনের বাড়ি থেকে তার স্ত্রী সাহানা বেগমকে ১গ্রাম হিরোইনসহ আটক করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ জানায় গোলাম হোসেনের স্ত্রী সাহানা লোকচক্ষুর আড়ালে হিরোইন বিক্রি করতো। রাতে অভিযান চালিয়ে আটক করা হয়েছে। এছাড়াও মাদক সেবনের অভিযোগে সরেরহাট গ্রামের সাজদারের ছেলে শাহিনুরকে আটক করে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।
অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মহসীন আলী জানান, বুধবার তাদেরসহ সি,আর মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় উপজেলার চক এনায়েতপুর গ্রামের খলিলের ছেলে উজ্জলকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

Spread the love
  • 58
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    58
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published.