বাগাতিপাড়ায় ভিজিডি কার্ডে অনিয়মের তদন্তে সত্যতা মিলেছে , শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ

রাজশাহী লীড

বাগাতিপাড়া প্রতিনিধি:
নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার সদর ইউনিয়নে দুঃস্থ মহিলা উন্নয়ন কর্মসূচী সহায়তা হিসেবে ভিজিডি কার্ড প্রদানে অর্থ আদায়সহ ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগের খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশের পরে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সঠিকভাবে তদন্ত ও দুর্নীতিবাজদের শাস্তির দাবিতে বুধবার দুপুরে ইউনিয়ন পরিষদ চত্ব¡রে বিক্ষোভ করেন অভিযোগকারী এবং স্থানীয়রা।

সম্প্রতি ভিজিডি কার্ড বাবদ সদর ইউনিয়নের বেশ কিছু এলাকার ৩০ জন ভুক্তভোগীর নিকট থেকে তোলা হয়েছে প্রায় লাখ টাকা। ভিজিডি যাচাই বাছাই কমিটির সদস্য বাগাতিপাড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কায়সার ওয়াদুদ বাবর, সদর ইউপির কয়েকজন ইউপি সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্যদের বিরুদ্ধে টাকাগুলো তুলার অভিযোগ করা হয়। এছাড়াও স্বচ্ছল ব্যক্তিদের নাম অন্তর্ভুক্ত করা, ইউপি চেয়ারম্যান তার পছন্দের ব্যাক্তিদের তালিকাভুক্ত করার জন্য নানা কৌশলের আশ্রয় নেয়া, বিধি অনুযায়ী অনলাইনে আবেদন না করাসহ বেশ কিছু অভিযোগ করা হয়। স্থানীয়দের উদ্যোগে গণসচেতনতায় মাইকিং করা হলে সকলে ফুশে উঠে। পরে দায়ের করা অভিযোগের তদন্তের দিন ধার্র্য্য করা হলে ভুক্তভোগীরা একত্রিত হয়ে দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে বিচার দাবি করেন বিক্ষোভ ও পথসভার মাধ্যমে।

বিক্ষোভ শেষে এক পথসভায় মিলিত হয়ে অভিযোগকারীরা দাবি করেন, বাগাতিপাড়া সদর ইউনিয়নের কিছু অসাধু জনপ্রতিনিধি ও টাউট-বাটপার দীর্ঘদিন যাবৎ অসহায় দুঃস্থ মানুষকে বিভ্রান্ত করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। ওই সকল অসাধু জনপ্রতিনিধি ও টাউট-বাটপারদের বিরুদ্ধে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহব্বান জানানো হয়। অনিয়ম ও দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে করা অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত সুষ্ঠুভাবে কর্র্তৃপক্ষকে দেওয়া হবে এমনটা দাবি করা হয় পথসভায়।

এব্যাপারে তদন্ত কমিটির প্রধান উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হাবিবা খাতুন বলেন, ‘অভিযোগের প্রেক্ষিতে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তার প্রেক্ষিতে আজকে অভিযোগকারী ও অভিযুক্তদের নোটিশের মাধ্যমে ৩নং বাগাতিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদে উপস্থিত হতে বলা হয়। কিন্তু অভিযোগকারীদের উপস্থিতি সন্তোষ্টজনক হলেও কয়েকজন অভিযুক্ত আসেন নাই। অভিযোগকারীদের স্বাক্ষর সাপেক্ষে তাদের বর্ণনা লিখিতভাবে গ্রহন করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে তাদের অভিযোগ আমার কাছে সত্য বলে মনে হয়।’ তদন্ত রিপোর্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট দেওয়া হবে এবং উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহন করবেন বলে জানান তিনি।

Spread the love
  • 130
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    130
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published.