চিনিকলে আখ মাড়াই চালুর দাবিতে বিক্ষোভ-মহাসড়ক অবরোধ

রাজশাহী

স্বদেশবাণী ডেস্ক: আসন্ন মৌসুমে পাবনা চিনিকলে আখ মাড়াই বন্ধের প্রতিবাদে এবং আখ মাড়াই কার্যক্রম চালু রাখার দাবিতে ঈশ্বরদী-পাবনা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ ও সমাবেশ করেছে আখ চাষীরা। মঙ্গলবার (২২ ডিসেম্বর) সকাল থেকে ঈশ্বরদী উপজেলার দাশুড়িয়া কালিকাপুর চিনিকলের সামনের এই মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন আখ চাষীরা। পরে সেখানেই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

অবরোধ চলাকালে বিক্ষোভকারীরা টায়ার জ্বালিয়ে প্রতিবাদ করেন এবং পাবনা চিনিকলে আখ মাড়াই কার্যক্রম চালু রাখার দাবিতে বিভিন্ন শ্লোগান দেন। এ সময় সড়কের দু’পাশে যানবাহন আটকা পড়ে, যাতে চরম দুর্ভোগে পড়েন নিকট ও দূরের যাত্রীরা। পরে থানা পুলিশের হস্থক্ষেপে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয় এবং বিক্ষোভকারীরা অবরোধ তুলে নেন।

আখ চাষী সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ চিনিকল আখ চাষী ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান আলী বাদশা। পাবনা চিনিকল আখ চাষী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আনছার আলী ডিলুর সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন- ঈশ্বরদী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা নায়েব আলী বিশ্বাস, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মকলেছুর রহমান মিন্টু, দাশুড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বকুল, সলিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আ. মজিদ বাবলু মালিথা, আখ চাষী নজরুল ইসলাম, কৃষকনেতা মুরাদ মালিথা, পাবনা চিনিকল ওয়াকার্স ইউনিয়নের সভাপতি সাজেদুল ইসলাম শাহিন, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুজ্জামান উজ্জল, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, সাবেক সভাপতি ইব্রাহীম হোসেন প্রমুখ।

সমাবেশে আসন্ন মৌসুমে আখ মাড়াই চালু রাখাসহ দেশের ১৫টি চিনিকল চালু রেখে আখ চাষীদের আখের মূল্য পরিশোধ, সার-কীটনাশকসহ চাষীদের যাবতীয় উপকরণ সরবরাহ, শ্রমিক-কর্মচারীদের বকেয়া বেতন পরিশোধ এবং অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের গ্রাচুইটির টাকা পরিশোধের দাবি জানান।

উল্লেখ্য, ঈশ্বরদীতে প্রায় ৫ হাজার কৃষক এ বছর তাদের জমিতে আখ চাষ করেছেন।

পাবনা চিনিকল সূত্রে জানা যায়- গত ৬ মাস এই মিলের শ্রমিক কর্মচারীর বেতন দেওয়া হয়নি। ৬৫০ জন শ্রমিক-কর্মচারীর বেতন বাবদ মিলের কাছে ৬ কোটি টাকার বেশি পাওনা রয়েছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *