বাঘায় ছাত্রলীগ কর্মীদের বিরুদ্ধে নিজ দলের কর্মীকে মাধরের অভিযোগ,বিচার দাবিতে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ

রাজশাহী

বাঘা প্রতিনিধি: বাঘায় এলোপাথাড়ি মারপিটে আহত হয়েছে এক ছাত্রলীগ কর্মী। নিজ দলের কর্মীদের বিরুদ্ধে তাকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। বৃহসপতিবার (২৫-০২-২০২১) দুপুর ২টায় বাঘা বাজারে সোহাগ নামের এই ছাত্রলীগ কর্মীকে মারধর করা হয়। এ ঘটনায় বিচারসহ গ্রেফতারের দাবিতে বাঘা মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে যুবলীগ-ছাত্রলীগের একাংশের কর্মীরা।

এসময় জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. লায়েব উদ্দিন লাভলুকে উদ্দেশ্য করে শ্লোগান দেয় বিক্ষোভকারিরা। উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে।

বাঘা পৌরসভার গাওপাড়া গ্রামের দবির উদ্দীনের ছেলে সোহাগ জানায়, বৃহসপতিবার হাটবারের দিন তার বাবার মাছের দোকানে বসে মাছ বিক্রি করছিল। এ সময় ছাত্রলীগ কর্মী রাসেল,মনি,অন্তর ও শাহজালালসহ ১০-১২ জন ছেলে তার দোকান গিয়ে উঠতে বলেই এলোপাথাড়ি মারপিট শুরু করে। ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সানোয়ার হাসেন সুরুজের নের্তৃত্বে তারা তাকে মারধর করেছে বলে দাবি তার। তার ধারনামতে সম্প্রতি বাঘা লাইভ প্রোগামে কমেন্টের জের ধরে মারধর করা হয়েছে।

সেই প্রোগামে ছিলেন,জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. লায়েব উদ্দিন লাভলু ও জেলা আ’লীগের সদস্য,সাবেক মেয়র আক্কাছ আলী।
সানোয়ার হোসেন সুরুজ জানান, ঘটনার সাথে সে সম্পৃত নয়। ওই ঘটনার আগে রাতুল নামের ছাত্রলীগের এক কর্মীকে মারধর করে। উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক,বাঘা পৌরসভার প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান পিন্টুর নের্তৃত্বে বেশ কয়েকজন ছেলে পুনরায় তাকে ধাওয়া করে। ওই সময় সাবেক –বর্তমান ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মীদের নিয়ে ঘটনা দেখছিলেন। গালাগালির সুত্র ধরে রাতুলকে মারধর করা হয়েছে বলে জানতে পেরেছি। তবে কে কাকে গালাগালি করেছে তা জানতে পারেননি।

শাহিনুর রহমান পিন্টু দাবি করে বলেন, আমার সমর্থিত ছাত্রলীগ কর্মীকে মারধরের বিচার ও গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভের সময় রাস্তা অবরোধ করা হয়েছে।

এ্যাড. লায়েব উদ্দিন লাভলু বলেন, আমার ওপর হামলার উদ্দেশ্যে শাহীনুর রহমান পিন্টুর লোকজন লাঠি-সোঠা নিয়ে উপজেলা কার্যালয়ের সামনে গিয়ে গালিগালাজ করেছে বলে শুনেছি। আমি কার্যালয়ে না থাকায় তারা সেখান থেকে ফিরে গিয়ে বাঘা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয়। রাজনৈতিক কাজে আমি তিনদিন ধরে রাজশাহী শহরে অবস্থান করছি। অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, আহত সোহাগ বাদি হয়ে তার ভাইয়ের মাধ্যমে একটি অভিযোগ করেছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স্ব.বা/বা

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *