ফোরলেন রাস্তার উদ্বোধন করলেন এলজিআরডি মন্ত্রী তাজুল ইসলাম

রাজশাহী লীড

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের(রাসিক) নির্মিত একটি ফোরলেন সড়কের উদ্বোধন ও চলমান বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম পরিদর্শন করেছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী তাজুল ইসলাম এমপি। শনিবার দিনব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে রাসিকের সড়ক উদ্বোধন ও উন্নয়ন কার্যক্রম পরিদর্শন করেন তিনি।

এর আগে দুপুর সাড়ে ১২টায় কাদিরগঞ্জে মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামানের কবরে পুষ্পস্তক অর্পণ করেন এলজিআরডি মন্ত্রী তাজুল ইসলাম এমপি। এরপর পৃথকভাবে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। পুষ্পস্তবক অর্পণের পর দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এসময় রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন, কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এরপর দুপুর পৌঁনে ১টায় রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের সভাপতিত্বে বারো রাস্তার মোড়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফলক উন্মোচন করে ১৮৯ কোটি ৩৪ লাখ ৫৯ হাজার টাকা ব্যয়ে মহানগরীর রাজশাহী-নওগাঁ প্রধান সড়ক হতে মোহনপুর-রাজশাহী-নাটোর সড়ক পর্যন্ত পূর্ব-পশ্চিম সংযোগ সড়ক নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় নির্মিত আলিফ লাম মীম ভাটার মোড় হতে বিহাস পর্যন্ত ৬ দশমকি ৭৯৩ কিলোমিটার ৪ লেন সংযোগ সড়কের উদ্বোধন করেন মন্ত্রী তাজুল ইসলাম এমপি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। অনুষ্ঠানের শুরুতে কাউন্সিলরবৃন্দের পক্ষ থেকে মন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।

উল্লেখ্য, প্রকল্পের আওতায় ফোর সড়কের দুই পাশে ফুটপাথ, ১টি ব্রীজ, ৮টি কালভার্ট, মিডিয়ান ও ট্রাফিক কাঠামো নির্মাণ করা হয়েছে। প্রকল্পটির আওতায় ২৯ কোটি ২৮ লাখ ৭৭ হাজার ৫৩২ টাকা ব্যয়ে ১২০ মিটার দৈর্ঘ্য র‌্যাম ২০২ দশমিক ৫০ মিটারের ফ্লাইওভার নির্মাণ করা হয়েছে। রাজশাহীর প্রথম ফ্লাইওভার নগরবাসীর নজর কেড়েছে। সড়ক উদ্বোধনের পর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে রাসিকের আধুনিক সেকেন্ডারি ট্রান্সফার স্টেশনের (এসটিএস) কার্যক্রম, ১৬৪ কোটি ১৯ লাখ ২৯ হাজার টাকা ব্যয়ে আলুপট্টি মোড় থেকে তালাইমারি মোড় পর্যন্ত সড়ক ফোরলেনে উন্নীতকরণ, সড়কের দুই পাশে ২.২০ মিটার চওড়া ফুটপাথ এবং আইল্যান্ড নির্মাণ কাজ, ১৬ তলা বিশিষ্ট সিটি সেন্টার নির্মাণ, ঐতিহ্যবাসী সোনাদিঘি সংস্কার ও সৌন্দর্য্য বর্ধন কাজ, মনিচত্বর থেকে সদর হাসপাতাল পর্যন্ত সড়ক প্রশস্তকরণের লক্ষ্যে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সীমানা প্রাচীর, ড্রেন ও ফুটপাত নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করেন মন্ত্রী।

এছাড়া ১২৬ কোটি ৩৯ লাখ ৯৯ হাজার টাকা ব্যয়ে উপশহর থেকে নগর ভবন, মালোপাড়া মোড় হয়ে সাগরপাড়া মোড় পর্যন্ত সড়ক প্রশস্তকরণ প্রকল্পের আওতায় নগর ভবন থেকে মহিলা কলেজের সামনে হয়ে মালোপাড়া পুলিশ ফাঁড়ি হয়ে রাণীবাজার পর্যন্ত সড়ক প্রশস্তকরণ কাজ পরিদর্শন করেন এলজিআরডি মন্ত্রী। এছাড়া পদ্মাপাড়ে দৃষ্টিনন্দন ব্রিজ ও শাহ মখদুম মাজার পরিদর্শন করেন। এরপর হযরত শাহ মখদুম এর মাজার জিয়ারত করেন। কয়ের দারা এলাকায় ড্রেনের পাশে নির্মিত দৃষ্টিনন্দন সড়ক ও সপুরা মঠ পুকুর পরিদর্শন করেন তিনি।

পরিদর্শন শেষে এলজিআরডি মন্ত্রী বলেন, ‘রাজশাহীর অবকাঠামো উন্নয়নে ও জনকল্যাণে যত কাজ করা দরকার, সবই করছেন রাসিক মেয়র করছেন। যেভাবে উন্নয়ন হচ্ছে আগামীতে রাজশাহী দেশের অনন্য নগরীতে পরিণত হবে।’

এর আগে সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমানযোগে রাজশাহীর হযরত শাহ মখদুম বিমানবন্দরে এসে পৌছালে এলজিআরডি মন্ত্রী তাজুল ইসলাম এমপিকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান রাসিক মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি খায়রুজ্জামান লিটন। এরপর সার্কিট হাউসে মন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দ। দুপুর ১২টায় সার্কিট হাউসে স্থানীয় সরকার বিভাগের আওতায় রাজশাহী বিভাগে চলমান উন্নয়ন কার্যক্রম নিয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তর ও সংস্থার সাথে মতবিনিময় করেন তিনি। অনুষ্ঠানে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দ, কর্মকর্তাবৃন্দসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সফরসূচি অনুযায়ী, বিকাল সাড়ে তিনটায় পদ্মা নদীর তীরে টি-বাঁধে হতে স্পিড বোটযোগে প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু রিভারভিউ সিটি এলাকা পরিদর্শন করবেন মন্ত্রী তাজুল ইসলাম এমপি। সন্ধ্যা ৭টায় নগর ভবনের গ্রিন প্লাজায় রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের উন্নয়ন কার্যক্রম অবহিতকরণ ও নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করবেন। নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করবেন রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। পরদিন রবিবার সকাল ১১টায় হযরত শাহ মখদুম বিমানবন্দরে উপস্থিতি এবং ইউএস বাংলা বিমানযোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে বিমানবন্দর ত্যাগ করবেন মন্ত্রী।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *