তানোরে বৌদির মামলায় দেবর গ্রেফতার

রাজশাহী

তানোর প্রতিনিধি: রাজশাহীর তানোরে মুসলিম মহিলাকে হিন্দু বাবিয়ে বিয়ে করা সেই সুফল দাস এবার জোর করে নিজ বিধবা বৌদির ঘরে ঢুকে ধর্ষণের চেষ্টায় সংখ্যালঘু বিধবা বৌদির মামলায় দেবর সুফল দাসকে গ্রেফতার করেছে তানোর থানার পুলিশ। এমন চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে, গত( ৩০ মার্চ) মঙ্গলবার সকালে তানোর পৌর এলাকার হিন্দু পাড়া পালপাড়া গ্রামে। এতে করে ফের সুফলের এমন জঘন্য কান্ডে এলাকা জুড়ে দেখা দিয়েছে চাঞ্চল্য ও বিরাজ করছে উত্তেজনা।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, তানোর পৌর এলাকার হিন্দু পাড়া পালপাড়া গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা তিনাত চন্দ্র দাসের বড় ছেলে মৃত রাজকুমারের বিধবা স্ত্রী শ্রীমতি লক্ষী রানীকে দীর্ঘদিন ধরে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলো দেবর সুফল দাস। কিন্তু বিধবা বৌদি তাকে কোন পাত্তা না দিয়ে একাধিকবার নিষেধ করেন। এমনকি দেবরের বিরুদ্ধে স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিদের মৌখিক অভিযোগ দিয়েও কোন সুরাহা পায়নি মৃত রাজকুমারের বিধবা স্ত্রী।

এবার জোর করে তিনাতের ছোট ছেলে শ্রী সুফল দাস নিজের বিধবা বৌদির ঘরে ঢুকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এসময় তার বিধবা বৌদি চিৎকার করলে আশপাশের প্রতিবেশীরা ছুটে আসলে বৌদিকে ফেলে পালিয়ে যান দেবর সুফল দাস। এঘটনায় মৃত রাজকুমারের স্ত্রী শ্রীমতী রানী বাদী হয়ে তানোর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে সেই মামলায় দেবর সুফল দাসকে গ্রেফতার করেন।

তানোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি রাকিবুল হাসান রাকিব জানান, সুফল দীর্ঘদিন ধরে তার নিজের মৃত বড় ভাইয়ের বউকে বিভিন্ন কুপ্রস্তাব দিয়ে উক্তাক্ত করে আসছিলো, এর আগেও একবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও মহোদয় সুফলকে ১বছরের ভ্রাম্যমাণ আদালতে জেল নিয়েছিলেন। তার পরেও জেল থেকে বেরিয়ে এসে এক মুসলিম মহিলাকে বের করে হিন্দু ধর্মে বিয়ে করেছে। এরপরও তার বিধবা বৌদির ঘরে ঢুকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে। এতে তার বৌদি বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। সেই মামলায় সুফলকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

 

স্ব:বা/না

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *