সিসিটিভির ভিডিও ফুটেজের সূত্র ধরে ৪ ছিনতাইকারী আটক

রাজশাহী লীড

স্টাফ রিপোর্টারঃ রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানার নিউ গভঃ ডিগ্রী কলেজের সামনে ছিনতাইয়ের ঘটনায় চার ছিনতাইকারীকে আটক করেছে রাজপাড়া থানা পুলিশ।

রাজশাহী শহরকে নিরাপদ নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে অপরাধ প্রবণতা শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনতে, পুলিশ কমিশনার জনাব মোঃ আবু কালাম সিদ্দিক মহোদয়ের নির্দেশনায় নগরজুড়ে ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা স্থাপন করেছে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ। যার সুফল প্রতিনিয়তয় পাচ্ছে নগরবাসী। মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে স্থাপন করা সিসিটিভি ক্যামেরায় ধারণকৃত ভিডিও ফুটেজ সূত্র ধরে দূর্ঘটনার কারণ, হারিয়ে যাওয়া মালামাল উদ্ধার, চুরি, ছিনতাই, খুনসহ অনেক সমস্যা দ্রুত সমাধান করা সম্ভব হচ্ছে।

এরই ধারবাহিকতায় এবার সুফল পেয়েছেন নগরীর সীমা আক্তার(ছদ্মনাম), তার ছিনতাইকৃত মোবাইল ও টাকা উদ্ধার করে এবং ছিনতাইয়ের সাথে জড়িত ৪ জনকে আটক করেছে রাজপাড়া থানা ‍পুলিশ।

প্রসংঙ্গত, গত ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ তারিখে মোছাঃ সীমা আক্তার(ছদ্মনাম) সাহেব বাজার হতে অটোরিক্সায় তার বাসায় যাচ্ছিলেন। বাসায় যাওয়ার পথে সন্ধ্যা ৭.৩০ টায় রাজপাড়া থানার নিউ গভঃ ডিগ্রী কলেজের সামনে পৌছালে একটি কালো রংয়ের জিক্সার মোটরসাইকেল যোগে ৩ জন তার পথরোধ করে। এসময় তাদের আরও ১ জন সহযোগী পূর্বে থেকেই সেখানেই অবস্থান করছিলো। এরপর তারা জোর পূর্বক সীমা আক্তারের ব্যাগ ছিনতাই করে পালিয়ে যায়।

উক্ত ঘটনার প্রেক্ষিতে রাজপাড়া থানায় মামলা রুজু হয়।

মামলার পরপরই রাজপাড়া থানার সহকারি পুলিশ কমিশনার জনাব উদয় কুমার সাহা এর নির্দেশে অফিসার ইনচার্জ জনাব মোঃ মাজহারুল ইসলামের তত্বাবধানে এসআই মোঃ নুরুল ইসলাম মামলার অনুসন্ধান কার্যক্রম শুরু করেন। অনুসন্ধান কার্যক্রমের অংশ হিসেবে তিনি আরএমপি’র সিসি ক্যামেরার ১৩ তারিখের ঘটনাস্থলের ভিডিও ফুটেজ পর্যালোচনা করেন। সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজে ছিনতাইয়ের ঘটনার সাথে জড়িত আসামীদেরকে সনাক্ত করেন। আসামীরা হলো মোঃ অনিক (২২), এসএম হাসান মোক্তাদ্দির কিউট(১৭), মোঃ শিহাব (১৯) এবং মোঃ বিশাল (২১)।

পরবর্তীতে এসআই মোঃ নুরুল ইসলাম ও তাঁর টিম গোপন তথ্যের ভিত্তিতে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি রাত ৩ টায় আসামী মোঃ অনিক (২২)কে চন্দ্রিমা থানার ভদ্রা জামালপুর গ্রামের নিজ বাড়ি হতে গ্রেফতার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অনিক ছিনতাই ঘটনার অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করে। অনিকের দেওয়া তথ্য মতে কিউটের বাড়িতে অভিযান করে ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত মোটরসাইকেল জব্দ করলেও আসামী কিউট পালিয়ে যায়। এরপর আসামী মোঃ শিহাব (১৯)কে ২৮ ফেব্রুয়ারি সিএন্ডবি মোড় এলাকা হতে এবং আসামী এসএম হাসান মোক্তাদ্দির কিউট(১৭)কে ২০ এপ্রিল ২০২১ রাজপাড়া থানার কোর্ট এলাকা হতে গ্রেফতার করে। সর্বশেষে গত ২৫ মে ২০২১ রাত ১২.১৫ টায় আসামী মোঃ বিশাল (২১)কে রাজপাড়া থানার লক্ষীপুর ঝাউতলা মোড় এলাকা হতে গ্রেফতার করে।

ইতোপূর্বে ছিনতাইকৃত মালামাল রাজপাড়া থানার ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলার মোঃ মতিউর রহমানের মাধ্যমে উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণকরাসহ তদন্ত কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *