বাঘায় ইমো হ্যাকার চক্রের ৬ সদস্য আটক

রাজশাহী লীড

বাঘা প্রতিনিধি: বাঘায় ইমো হ্যাকার ৬ সদস্যকে আটক করা হয়েছে। শনিবার (১০ জুলাই) সন্ধ্যায় র‌্যাব-৫, রাজশাহীর সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্পের একটি অপারেশন দল গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বাঘার আলাইপুর ও চারঘাটের খেড়ু–র মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করেন।

 

জানা যায়, মোবাইল ফোন ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম “ইমো” হ্যাকিং করে বিকাশের মাধ্যমে প্রতারণা করে অর্থ হাতিয়ে নেয়, অভিযোগে সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্প, র‌্যাব-৫, রাজশাহীর কোম্পানী কমান্ডার মেজর মো. সানরিয়া চৌধুরী এবং উপ-অধিনায়ক অতিঃ পুলিশ সুপার মো. ফরহাদ হোসেনের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে বাঘা উপজেলার নন্দি গ্রামের সামসুল সরকারের ছেলে সেলিম রেজা (২৪), তুলসিপুর গ্রামের আনিসুল মোল্লার ছেলে সাদিকুর ইসলাম (২৪), উত্তর মিলিক বাঘা গ্রামের ইতিম বিশ্বাসের ছেলে শান্ত বিশ্বাস (২১), আবুল হোসেনের ছেলে আবু জাফর (১৯), দক্ষিণ মিলিক বাঘা গ্রামের ইসরাফিল হোসেনের ছেলে রবিন ইসলাম (২২), আলাইপুর গ্রামের মৃত তাজ মোহাম্মদের ছেলে ইসরাফিল হোসেনকে (৩০) আটক করা হয়।
এ সময় তাদের কাছে ১৩টি মোবাইল, ১৮টি সিম কার্ড-, ১টি মেমোরী কার্ড, ১টি মোটর সাইকেল, নগদ ৩০ হাজার ৭১৫ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

 

এ বিষয়ে সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্প, র‌্যাব-৫, রাজশাহীর কোম্পানী কমান্ডার মেজর মো. সানরিয়া চৌধুরী এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, এই সংঘবদ্ধ হয়ে দীর্ঘদিন এলাকায় প্রতারণা, অর্থ-আত্মসাৎ ও মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। তারা নিজ নিজ এলাকায় ইমো হ্যাকার সদস্য হিসেবে পরিচিত। এই চক্র সংঘবদ্ধভাবে প্রবাসীদের সঙ্গে প্রতারণা করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। প্রবাসী নামে বিভিন্ন ফেসবুক পেজ, গ্রুপ খুলে প্রবাসীদের অ্যাড করে। সেসব পেজ কিংবা গ্রুপে কিছু মেয়েকে লাইভে এ্যাড করে।

 

পাশাপাশি চ্যাটিংয়ের মাধ্যমে যোগাযোগ করে ফোন নম্বর সংগ্রহ করে। তাদের টার্গেট প্রবাসী পরে বাংলাদেশি। ধারণা করা হচ্ছে এ ধরনের প্রতারণার সাথে অনেকেই জড়িত রয়েছে। র‌্যাব বাদি হয়ে তাদের বিরুদ্ধে চারঘাট থানায় মামলা দায়ের করেন। আসামীদের রোববার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে ওসি জানান।

 

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *