তরুনদের মাদকমুক্ত রাখতে সিংড়ায় জিমনেসিয়াম করা হলো- প্রতিমিন্ত্রী পলক

রাজশাহী
আল-আফতাব খান সুইট, নাটোর প্রতিনিধিঃ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন, পরিমিত খাদ্যাভাস শরীর সুস্থ । এছাড়া নিয়মিত হাটা ও ব্যায়াম করলে শরীর ও মনকে চাঙ্গা রাখে। প্রত্যেককে প্রতিদিন হাঁটাহাঁটি করা উচিত। একই সাথে পরিমিত খাবারের অভ্যাস করতে হবে। বেশী খাবার খেলে অস্বস্তিতে পড়তে হয়। এই বৈশ্বিক মহামারির সময়ে সকলকে পরিমিত খাবারের অভ্যাস করতে হবে। প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, সিংড়ায় তরুন সমাজকে মাদকমুক্ত রাখতে এই জিমনেসিয়াম চালু করা হলো। সকলকে সুস্থ ও সবল দেহ গড়ে তুলতে হবে। একই সাথে উন্নত, আধুনিক, নিরাপদ ও  মানবিক সিংড়া গড়ে তুলতে সকলকে এক সাথে কাজ করতে হবে।
সোমবার (১৯ জুলাই) নাটোরের সিংড়ায় জিমনেসিয়াম ফিট এন্ড ফাইন ইউথ ফ্রেন্ডস এন্ডস ফ্যামিলি ও সিংড়া ডায়াবেটিক সমিতির সম্প্রসারিত ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী তথ্য জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি এসব কথা বলেন। সিংড়া উপজেলা কোর্ট চত্বরের ডায়াবেটিস সমিতি ভবনে উপজেলা নিবার্হী অফিসার সামিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভায় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট ওহিদুর রহমান শেখ, প্রফেসর আতিকুর রহমান, রবীন্দ্র গবেষক ডঃ আশরাফুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কামরুল হাসান কামরান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামিমা হক রোজি, উপজেলা আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ও ডায়াবেটিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাওলানা রুহুল আমিন, উপজেলা সমাজসেবা অফিসার আতিকুর রহমান, উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী মোঃ হাসানুজ্জামান, ডাহিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম এম আবুল কালাম, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শরিফুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক বকুল প্রমুখ।
প্রতিমন্ত্রী পলক এর আগে উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী অফিস ভবন উদ্বোধন, পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে স্থানীয় ৫৭১ জন শ্রমিকদের মাঝে  নগদ ৫০০ টাকা এবং ক্যান্সার, কিডনি, লিভার সিরোসিস, স্ট্রোকে প্যারালাইজড ও জন্মগত হ্রদরোগ ও থ্যালাসেমিয়া ২৮ জন রোগীদের মাঝে ১৪ লক্ষ টাকার চেক প্রদান করেন।
এসব অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশ সংবিধানের জনগনের মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করে গেছেন। তিনি যদি বেঁচে থাকতেন, অল্প সময়ে বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে মাথা তুলে দাঁড়াতো। কিন্তু ঘাতকরা সে সুযোগ দেয়নি। তাঁরই সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশকে উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠায় কাজ করে যাচ্ছেন এবং আইসিটি বিভাগ এদেশকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলার আধুনিক রুপ ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে কাজ করছেন। ডিজিটাল বাংলাদেশের রুপকার সজিব ওয়াজেদ জয়ের নেতৃত্বে কাজ করে যাচ্ছি। ইতোমধ্যে আইসিটি বিভাগ সকল মন্ত্রণালয়ের মধ্যে সেরা হিসেবে পুরস্কৃত হয়েছে। তিনি আরো বলেন, শ্রমজীবী মানুষদের শ্রমের মুল্য বঙ্গবন্ধু দিতেন তেমনি তাঁরই সুযোগ্য কন্যা শ্রমজীবী মানুষের দুংখ দুর্দশা জানেন, বুঝেন। এজন্য শ্রমজীবী, কর্মহীন মানুষদের সরকার মানবিক সহায়তা, খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিচ্ছেন। কেউ না খেয়ে থাকবে না, কেউ গৃহহীন থাকবে না। সরকার এজন্য আন্তরিকতার সাথে কাজ করছে। করোনা কালিন এ দুর্যোগে সরকার সবাইকে নিয়ে কাজ করছে। বিগত সকল দুর্যোগে আমরা মানুষের পাশে ছিলাম, আছি, থাকবো। ইতিমধ্যে সিংড়া উপজেলায় আমরা ১০ লক্ষ বৃক্ষ রোপন করেছি। ২ লক্ষ মাস্ক বিতরন করা হয়েছে।  আরো ২ লক্ষ মাস্ক বিতরন করা হবে। ৪০ টি করোনা প্রতিরোধ বুথ স্থাপন করা হয়েছে।
এসব অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে এসময় উপস্থিত ছিলেন সিংড়া পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম সহ প্রমুখ শ্রমিক নেতৃবৃন্দ।
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *