বাঘায় ঘর তুলতে বাঁধা দেওয়ায় মারপিটের অভিযোগ, পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের!

রাজশাহী লীড
বাঘা প্রতিনিধি: বাঘা উপজেলার চরাঞ্চলে ঘর তুলতে বাঁধা দেওয়ায় মকরম আলী নামের একজনকে মারধর করে  রক্তাত্ত জখমের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার (৫-৮-২০২১) সকাল ৭ টায় উপজেলার চরাঞ্চলের দাদপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর আহত  মকরম আলীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সে দাদপুর গ্রামের জয়েন উদ্দীনের ছেলে।  আহত মকরম আলীর চেলে রুবেল বাদি হয়ে ৫ জনের বিরুদ্ধে বাঘা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।
 অভিযোগে রুবেল উল্লেখ করেছেন,  দাদপুর মৌজায় তার পিতার হক দখলীয় সম্পত্তিতে ঘাসের আবাদ করেছে। রোববার (৫-৮-২০২১) সকাল ৭ টায় তার পিতার অংশের সম্পত্তিতে বিবাদি -ইসলাম সেখ  তার ছেলে ও ছেলের স্ত্রীকে সাথে নিয়ে বাঁশ,খুটি  টিন দিয়ে ঘর তুলছিল। তার পিতার অংশের সম্পত্তিতে বাঁধা-নিষেদ করলে বিবাদিদেও সাথে তর্ক বিতর্ক হয়। এক পর্যায়ে তারা বাদি রুবেলের পিতা মকরম আলীকে বাঁশ,লোহার রড ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে রক্তাত্ত জখম করে। তার চিৎকারে স্থানীয়রা উদ্ধার করে  উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।
এ ঘটনায় ইসলাম সেখ  ও তার দুই ছেলে-সাইদুল,এমদাদুল এবং সাইদুলের স্ত্রী মাজেদা ও এমদাদুলের স্ত্রী শোভা বেগমের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন মকরম আলীর ছেলে রুবেল আলী। কথা বলার জন্য যোগাযোগ করেও দুর্গম এলাকার কারণে অভিযুক্তদের বক্তব্য নেওয়া যায়নি।
বাঘা থানার ডিউটি অফিসার তরিকুল ইসলাম (উপ পরিদর্শক)  জানান,উভয় পক্ষই পৃথক পৃথক অভিযোগ করেছে। একজন অফিসার মাধ্যমে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স্ব.বা/বা

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *