রায়ঘাটি ইউপিতে জনসমর্থন না পেওয়ায় চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী দুলালের প্রার্থীতা প্রত্যাহার

রাজশাহী

মোহনপুর প্রতিনিধি : মোহনপুর উপজেলার রায়ঘাটি ইউপিতে নাম মাত্র চেয়্যারমান ভোট করতে চেয়েছিলেন তালন্দ ললিত মোহন ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক দুলাল হোসেন। কিন্তু নির্বাচনের মাঠে ইউনিয়ন বাসির সাড়া না পেয়ে আজ ১১ নভেম্বর বৃহস্পতিবার তিনি উপজেলার নির্বাচন কার্যালয়ে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেন বলে জানা যায়।

সরজমিনে রায়ঘাটি ইউনিয়ন ঘুরে জানা যায়, রায়ঘাটি ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেতে চেয়েছিলেন প্রভাষক দুলাল হোসেন। কিন্তু তার জন সমর্থন না থাকায় ও জনগনের কাছে ভোট পাওয়ার সম্ভাবনা না থাকায় দল তাকে মনোনয়ন দেয়নি। পরে তিনি দলকে বৃদ্ধা আঙ্গুল দেখিয়ে স্বতন্ত্র চেয়্যারমান প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র জমা দেন এবং রায়ঘাটি বাসির কাছে হাসি ঠাড্ডার পাত্র হন। এলাকাবাসির অনেকের ধারণা তার মধ্যে চেয়্যারমান হওয়ার মতো যোগ্যতার ঘাটতি আছে। এছাড়াও তিনি পেশায় শিক্ষকতার কারনে বেশি সময় নিজ ইউনিয়নের বাহিরে থাকেন। দলীয় মনোনয়ন না পাওয়ায় ইউপির রাজনৈতিক নেতাসহ এলাকাবাসি পূর্বে যারা তার সমর্থনে ছিলেন তারাও তার সঙ্গ ত্যাগ করেন। অবশেষে হতাশা, অপমানের বোঝা এড়াতে তিনি সর্বশেষ দিনে এসে তার প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেন বলে অনেকের ধারণা।

এলাকাবাসিরা বলেন, দুলাল রায়ঘাটি এলাকার বাসিন্দা হলেও অনেক সময় কাটান ইউনিয়নের বাহিরে। তার কাছে বিগত দিনে আমরা তেমন কোন সেবা পাইনি। তাই চেয়ারম্যান হিসেবে তাকে যোগ্য মনে না হওয়ায় আমরা তার সঙ্গ ছেড়েছি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে দুলাল হোসেন জানান, দলীয় প্রার্থীকে সমর্থন করে আমি আমার প্রার্থীতা প্রত্যাহার করলাম।

যদি তাই হয় তাহলে আপনি একেবারে শেষ মুহূর্তে এসে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করলেন কেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি কোন উত্তর দিতে পারেনি।

উল্লেখ্য, মোহনপুর উপজেলার ৬ টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল ১১ নভেম্বর, আর প্রতীক বরাদ্দ ১২ নভেম্বর। আগামি ২৮ নভেম্বর ভোট গ্রহণ হবে।

 

 

 

 

স্ব:বা/না

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *