বাগাতিপাড়ায় প্রিজাইডিং অফিসারদের প্রতি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের আহবান -ইসি রফিকুল ইসলাম

রাজশাহী লীড
বাগাতিপাড়া (নাটোর) প্রতিনিধিঃ আমি বিশ্বাস করি নির্বাচন সংশ্লিষ্টদের সদিচ্ছা থাকলে কোন দুর্ঘটনা ঘটবে না এবং সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে প্রিজাইডিং অফিসারগণ  এমপি-চেয়ারম্যানদের প্রতি নমনীয় হবেনা।  আপনারা সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালন করলে আপনাদের কোন কিছু হলে আমি/আমরা (নির্বাচন কমিশন) আপনাদের জন্য বুক পেতে দেবো। এবারের ৩য় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের পরিবেশকে বিঘ্নিত বা নষ্ট করার চেষ্টা করলে সে যেই হোক তাকে আইনের আওতায় আনা হবে। এমপিদের ক্ষেত্রেও নমনীয় হবে না নির্বাচন কমিশন।
আমি বিশ্বাস করি নির্বাচন সংশ্লিষ্টদের সদিচ্ছা থাকলে কোনো প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটবে না। ভোট সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ হবে।
মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) সকালে বাগাতিপাড়া উপজেলা জিমনেসিয়াম হল রুমে উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে নির্বাচন গ্রহণকারী  কর্মকর্তাদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন নির্বাচন কমিশনার মোঃ রফিকুল ইসলাম।
কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়ে নির্বাচন কমিশনার বলেন, এবারের ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে অনুষ্ঠিত করার লক্ষ্যে বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সহ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েন করা হবে। ভোটকেন্দ্রে কেউ লুট করতে এলে পুলিশ বসে থাকবে না, পুলিশ কঠোর ব্যবস্থা নেবে।
তিনি আরও বলেন, নাগরিকের ভোট, ভোটের সরঞ্জাম রক্ষা ও সংশ্লিষ্টদের নিরাপত্তার জন্য বিধান রয়েছে। নির্বাচন অবাধ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য করতে সরকার সব রকম ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। সন্ত্রাসী ও বিশৃঙ্খলাকারীদের ছাড় দেওয়া হবে না।
কর্মশালায় নাটোর জেলা পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা প্রিজাইডিং অফিসারদের উদ্দেশ্যে বলেন, ভোটাররা ভোটকেন্দ্রে যাতে অবাধে যেতে পারেন, তার সব ব্যবস্থা করা হচ্ছে। প্রিজাইডিং অফিসাররা সততা, দক্ষতা ও নিরপেক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবেন। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি দেখবো আমরা। কিন্তু ভিতরের অবস্থা দেখবেন আপনারা। সকলে এক সঙ্গে নিরপেক্ষ কাজ করলে ২৮ তারিখের নির্বাচন হবে সুষ্ঠু।
অনুষ্ঠানের সভাপতি জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ বলেন, ভোটগ্রহণ শেষে দ্রুততম সময়ে ভোট গণনা করে কেন্দ্রে ঘোষণা দিয়ে উপজেলায় রিপোর্ট করবেন। বিকেল ৫টায় ভোটগ্রহণ শেষ হলেও অনেক কেন্দ্রে দেখা যায় রাত ১০টা বাজলেও ভোটগণনা শেষ হয় না। এসব কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসাররা বিপাকে পড়েন। পাশাপাশি নানা রকম গুজব ছড়িয়ে পড়ে। তখন উদ্ভূত পরিস্থিতি সামাল দিতে প্রশাসনকে বেগ পেতে হয়। তাই ঝুঁকি না নিয়ে দ্রুততার সঙ্গে ভোট গণনা করে ঘোষণা করবেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, রাজশাহী অঞ্চলের নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ ফরিদুল ইসলাম, জেলা নির্বাচন অফিসার আসলাম, বাগাতিপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রিয়াংকা দেবী পাল। এছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন, মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো.সিরাজুল ইসলাম,উপজেলা নির্বাচন অফিসার আবদুল মজিদ প্রমূখ।
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *